জীবনযাপন

আজকের জোকস: হাসতে বাধ্য আপনি

প্রেসার ঠিক রাখার ওষুধ বিয়ে
এক ডাক্তারের চেম্বারে এক নারী এসেছেন। তার প্রেসার আপ ডাউন করে, মানে এই লো প্রেসার তো এই হাই প্রেসার। আগে যে ওষুধ দেওয়া হয়েছিল তাতে তার আবার পা ফুলে যাচ্ছে। ডাক্তার তাকে জিজ্ঞাসা করলেন—

ডাক্তার: বলছে, ‘আপনাকে কি ওষুধ দেওয়া যায় বলুন তো?’
রোগী: ডাক্তার সাহেব আপনিই ভালো বুঝবেন।
ডাক্তার: আচ্ছা আপনি বিয়ে করেছেন?
রোগী: হ্যাঁ, কিন্তু কেন?
ডাক্তার: তাহলে অর্ধেক কাজ তো সেরেই ফেলেছেন। ওষুধপত্র লাগবে না। ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করুন। প্রেসার হাই হলে, বাপের বাড়িতে ২০ মিনিট কথা বলুন। আর প্রেসার লো হলে, স্বামীর সঙ্গে ৫ মিনিট কথা বলুন। হাতে নাতে ফল পাবেন। কোনো সাইড ইফেক্টও নেই।

****

জামানের বউ চুমকি দুই দিনের জন্য বাপের বাড়ি গেছে। কিন্তু এখন সাতদিন হয়ে এল। খোশগল্প করতে বউকে ফোন দিল সে—
জামান: আমার কথা ভুইলাই গেলা, সুইট হার্ট?
চুমকি: আরে না, তোমারে না দেইখা থাকা যায়, মজনু আমার!
জামান: তাইলে যখন আমার কথা মনে পড়ে তখন কী কর?
চুমকি: তোমার ছবি বাইর কইরা তার দিকে চাইয়া থাকি!
জামান: কিন্তু আমার গলা তো শুনতে পাও না, জান! যখন আমার আওয়াজ শুনতে মন চায় না? তখন কী কর?
চুমকি: কুনু সমস্যা নাই। ছোট ভাইয়ের পোষা কুত্তাটারে লাথি দেই গোটা কয়েক।

****

অফিসের ছুটি না পেলে যখন খুশি লাগে
মন্টুর বাপ গম্ভীর মুখে অনুমতি না নিয়েই গট গট করে বসের রুমে ঢুকল। বস খুবই বিরক্ত হলেন অধঃস্থনের এমন আচরণে। তিনি মেজাজ গরম করে বললেন—
বস: কি ব্যাপার! অনুমতি না নিয়ে ঢুকে গেলেন রুমে! মাথা ঠিক আছে তো?
মন্টুর বাপ: বস, আসলেও মাথা ঠিক নাই!
বস: কেন! কী হয়েছে?
মন্টুর বাপ: আমার স্ত্রী আমার সঙ্গে কোথাও বেড়াতে যেতে চায়। তাই ছুটি দরকার সপ্তাহখানেকের জন্য।
বস: আগামী ছয় মাসে কোনো ছুটি হবে না আপনার মতো লোকের! যান, নিজের কাজ করুন গিয়ে!

আনন্দে লাফিলে উঠে মন্টুর বাপ এবার বসকে বললেন—
মন্টুর বাপ: থ্যাঙ্কস স্যার! থ্যাঙ্ক ইউ ভেরি মাচ, বস! কী বলে যে আপনাকে ধন্যবাদ দিব!
বস: মানে? এটা কী হলো! এত খুশি কেন?
মন্টুর বাপ: আমি জানতাম, এমন বিপদে-আপদে আপনিই কাজে আসতে পারেন।
বস: মানে কী?
মন্টুর বাপ: স্যার মন্টুর মাকে এখনি ফোনে জানিয়ে দিচ্ছি-বস ছুটি দেন নাই।

Related Articles

Back to top button