জীবনযাপন

প্রিয় মানুষটির সঙ্গে বেশি কথা বললেই সুরক্ষায় থাকবে আপনার হৃৎপিণ্ড, জানাচ্ছে গবেষণা

হৃদরোগে আক্রান্ত পুরুষরা যদি স্ত্রীর সঙ্গে বেশি বেশি কথা বলে ও স্ত্রীর সঙ্গে বেশি সময় কাটায় তবে হৃৎপিণ্ড ভালো থাকবে। সম্প্রতি এক গবেষনায় এই চমকপ্রদ তথ্যটি দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিষয়ক মার্কিন গবেষকেরা। মার্কিন এই গবেষণাটি লাইভ সায়েন্সের একটি জার্নালে সদ্য প্রকাশিত হয়েছে।
গবেষক দলটি জানিয়েছেন, শত ব্যস্ততার মধ্যেও কিছুটা সময় বের করে স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটালে হৃৎপিণ্ডটি সুস্থ থাকবে। এ ছাড়াও প্রচণ্ডরকম ক্লান্তির মধ্যেও স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটালে মানসিক শক্তি বৃদ্ধি পায়। নানা বিরূপ পরিস্থিতি ও বিষাদগ্রস্ততায় স্ত্রীর সঙ্গে মনের কথা শেয়ার করলে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যাবে।

মার্কিন গবেষণাটিতে জানানো হয়েছে, সঙ্গীর সঙ্গে ইতিবাচক কথা আদান-প্রদানের সুযোগ থাকলে তিনি শারীরিকভাবে প্রায় ৩০টি রোগ থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। সঙ্গীর সঙ্গে অতিরিক্ত নেতিবাচক কথাবর্তার সঙ্গে পুরু ক্যারোটিড আর্টারির সম্পর্ক রয়েছে। ক্যারোটিড আর্টারি হলো একটি রক্তনালি যা ঘাড় থেকে মস্তিষ্কে রক্ত পৌঁছে দেয়। হৃৎপিণ্ডের বিভিন্ন সমস্যার সঙ্গে এই রক্তনালীর সম্পর্ক খুঁজে পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ভিএ গ্রেটার লস অ্যাঞ্জেলস হেলথকেয়ার সিস্টেমের গবেষক নাটারিয়া জোসেফ তার এক লেখনিতে জানান, যারা স্ত্রীর সঙ্গে বেশিরভাগ সময় ঝগড়ায় লিপ্ত থাকেন তাদের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের ঝুঁকি প্রায় সাড়ে আট শতাংশ বৃদ্ধি পায়।

জানা গেছে, এই গবেষণার জন্য গবেষকেরা প্রায় ৩০০ মাঝবয়সী দম্পতির তথ্য নিয়েছেন। গবেষকদের দাবি, আবেগ, ভালবাসা ও শারীরিক সম্পর্কের সঙ্গে আঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত ইতিবাচক সম্পর্ক। এতে স্বাস্থ্যের ওপর গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব পড়ে।

Related Articles

Back to top button