মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলাকে শান্তির মরুদ্যান করেছেন -পার্থ চট্টোপাধ্যায়

More articles

টোটকা24×7 নিউজ ডেস্ক: বলা হচ্ছে যে গত সাড়ে সাত বছরে বাংলায় কোনো খুনোখুনি হয়নি। এসবই বিজেপির পরিকল্পনা করে হিংসা ছড়ানোর মতলব। একথা জানায় দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্য জুড়ে হিংসার ঘটনাকে ভিত্তি করে বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুললো তৃণমূল। সঙ্গে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের উপদেশ বার্তাকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের আখ্যা। রাজ্যে সরকার হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আসার পর সাড়ে সাত বছরেও কোনো খুনোখুনির ঘটনা ঘটেনি। দাবী দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পরামর্শ দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “বাংলা শান্তির মরুদ্যান। বাংলাকে অশান্ত করার জন্য অগণতান্ত্রিক, অসাংবিধানিক ও স্বেচ্ছাচারীতায় ভরা অ্যাড ভাইজারি নোট পাঠাচ্ছেন। এটা রাজনৈতিক চক্রান্ত। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে সরকারকে অপমানিত করার চেষ্টা চলছে। এই দিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক পরামর্শ বার্তা পাঠিয়েছেন এই বলে যে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে নবান্নে পরামর্শ বার্তা পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

উপদেশ আইন শৃঙ্খলা রক্ষা ও শান্তি ফেরাতে সব ধরণের পদক্ষেপ নিক প্রশাসন। কোনও অফিসারের কাজের গাফিলতি পাওয়া গেলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হোক। এই বার্তায় প্রচণ্ড রকম ক্ষেপে গেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর কথায় নির্বাচনোত্তর রাজনৈতিক রক্তারক্তি ও অচলাবস্থা পরিকল্পনা মাফিক করেছে বিজেপি। সাড়ে সাত বছর রাজ্যে কোনোও রাজনৈতিক খুনোখুনি হয়নি। বিজেপি নেতারা ক্রমাগত উত্তেজনা ছড়িয়ে আমাদের কর্মী দের খুন করছে। কায়ুম মোল্লা, নির্মল কুণ্ডু, শেখ মফিজুল সহ ৬ জন কর্মী নিহত হয়েছেন। একটা দু মাসের বাচ্চা তাকেও মেরে ফেলা হয়েছে অশোকনগরে।

Latest