বয়স ধরে রাখতে ডাবের জলের বিশেষ কিছু উপকারিতা

চলতি পথে হঠাৎ তৃষ্ণা পেলে একটু থেমে একটি ডাব কিনে খান অনেকেই। তাতে দ্রুত শক্তি সতেজতা দুটিই মেলে। গাঢ় সবুজ রঙের এই ফলটি অন্যান্য ফলের মতো নয়। এর বাইরের খোলস শক্ত ও খাওয়ার অযোগ্য। তবে এর ভেতরেই রয়েছে হৃদয় ঠান্ডা করা সুস্বাদু মিষ্টি জল।

ডাব আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। ডাবের জলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যামাইনো অ্যাসিড, ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, ভিটামিন সি, আয়রন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, মেঙ্গানিজ এবং জিঙ্ক নানাভাবে শরীরে গঠনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

প্রতি ১০০ গ্রাম ডাবের জলে জলীয় অংশ ৯৫ গ্রাম, মোট খনিজ পদার্থ ০.৩ গ্রাম, আমিষ ২.৩ গ্রাম, শর্করা ২.৪ গ্রাম, চর্বি ০.১ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ১৫ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ০.০১ মিলিগ্রাম, আয়রন ০.১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি ১-০.১১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি২ ০.০২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ৫ মিলিগ্রাম ও খাদ্যশক্তি ২৩ কিলোক্যালরি। জেনে নিন ডাবের জলর আরও কিছু উপকারিতা-

দাঁত ভালো রাখে: ডাবের জলে খনিজ লবণ, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাসের উপস্থিতিও উচ্চমাত্রায়। এসব খনিজ লবণ দাঁতের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। দাঁতের মাড়িকে করে মজবুত। অনেকের দাঁতের মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়ে। মাড়ি কালচে লাল হয়ে যায়। হাসি বা কথা বলার সময় তা দেখা যায়। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ দেয় খনিজ লবণ।

হাড় ভালো রাখে: ডাবের জলে ক্যালসিয়াম, হাড়কে শক্ত-পোক্ত করে তোলার পাশাপাশি হাড়ের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। ডাবে উপস্থিত ম্যাগনেসিয়ামও এক্ষেত্রে নানাভাবে সাহায্য করে থাকে।

ক্ষতিকর উপাদান দূর করে: শরীরের ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানদের বের করে দিতে ডাবের জল বেশ কার্যকরী। প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস ডাবের জল পান করলে নানাবিধ রোগ যেমন শরীরের ধারে কাঁছে ঘেঁষতে পারে না, তেমনি সার্বিকভাবে শরীরিক ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

শরীর ঠান্ডা রাখে: গরমে আমাদের শরীরের ভেতরের ও বাহ্যিক তাপমাত্রা বেড়ে যায়। এতে ত্বকে ফুটে ওঠে লালচে কালো ভাব। ডাবের জল দেহের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা কমিয়ে শরীরকে রাখে ঠান্ডা।

ওজন কমায়: যারা ওজন কমানোর কথা ভাবছেন, তারা নিশ্চিন্তে খেতে পারেন ডাবের জল। ডাবের জলে বেশ কিছু উপকারি এনজাইম হজম ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি মেটাবলিজমের উন্নতিতেও সাহায্য় করে থাকে। তাই খাবার এত ভালোভাবে হজম হয়ে যায় যে শরীরে হজম না হওয়া খাবার মেদ হিসেবে জমার সুযোগই পায় না। ফলে ওজন কমতে শুরু করে।

বয়স ধরে রাখে: তারুণ্য ধরে রাখতে কে না চায়! আর এই তারুণ্য ও সতেজভাব ধরে রাখতে আপনাকে সাহায্য করবে ডাব। ডাবের জলে রয়েছে সাইটোকিনিস নামে নামে একটি অ্যান্টি-এজিং উপাদান, যা শরীরের উপর বয়সের ছাপ পরতে দেয় না।

দাগ দূর করে: মুখে জলবসনন্তের দাগসহ বিভিন্ন ছোট ছোট দাগের জন্য সকাল বেলা ডাবের জল দিলে দাগ মুছে এবং মুখের লাবণ্য ও উজ্জ্বলতা বাড়ে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: রাইবোফ্লবিন, নিয়াসিন, থিয়ামিন এবং পাইরিডোক্সিনের মতো উপকারী উপদান সমৃদ্ধ ডাবের জল প্রতিদিন পান করলে শরীরের শক্তি এতটা বৃদ্ধি পায় যে জীবাণুরা কোনোভাবেই ক্ষতি করার সুযোগ পায় না।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress