ভরা পেটে স্নান করলে কী ক্ষতি হয়? জেনেনিন

দুপুরের খাবার খেয়ে বিছানায় গড়াগড়ি কিংবা একটু ঘুমিয়ে নেয়ার অভ্যাস অনেকের। ছুটির দিনগুলোতে মজার খাবার খেয়ে, পছন্দের মুভি দেখতে দেখতে স্নানর কথা বেমালুম ভুলে যান অনেকে। এমনও হতে পারে, অলসতায় স্নানমুখী হতে মন চায় না। কিন্তু শেষ রক্ষা হয় না। স্নান তো করতেই হয়। আর ভরা পেটে স্নান করলে শরীরে দেখা দিতে পারে নানা অসুবিধা। ভাবছেন, স্নানর সঙ্গে পেট ভরা না খালি তার কী সম্পর্ক? জেনে নিন-

খাবার হজমের জন্য খাওয়ার পরপরই প্রচুর রক্ত পেটের দিকে ধাওয়া করে। কিন্তু আপনি যদি খাওয়ার পরপরই স্নান চলে যান তবে এই প্রক্রিয়ায় বাধা পড়ে। এ সময় পেটের আশেপাশে থাকা রক্তের গতিপথ বদলে গিয়ে সারা শরীরে ছড়িয়ে পরে, যে কারণে হজম ঠিক মতো হয় না। ফলে গ্যাস-অম্বল এবং বদহজমের সমস্যা বাড়তে থাকে। সেইসঙ্গে বুকজ্বালা ও বারবার ঢেকুরের সমস্যা দেখা দেয়। তাই এসব সমস্যা এড়াতে খাওয়ার পরে স্নান এড়িয়ে চলুন।

চিকিৎসকরাও খাওয়ার পরে স্নান করতে নিষেধ করেন। এমনকী, প্রাচীন আয়ুর্বেদ মতে খাবার খাওয়ার পরে হজমে সহায়ক পাচক রসের ক্ষরণ বেড়ে যায়। এসময় স্নান করলে শরীরের তাপমাত্রা কমে যাওয়ার কারণে হজম প্রক্রিয়া ধীমে গতিতে হতে থাকে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই খাবার ঠিকমতো হজম না হওয়ার কারণে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।

স্নানর পরে শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়, এটি সবাই জানেন। আর ঠিক এই কারণেই খাওয়ার পরে স্নান যেতে নিষেধ করা হয়। কিন্তু শরীরের তাপমাত্রার সঙ্গে হজমের সম্পর্ক কী? হজম প্রক্রিয়া যাতে ঠিকমতো হয়, তা নিশ্চিত করতে শরীরের তাপমাত্রা একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় থাকাটা একান্ত প্রয়োজন। তাতেই খাবার ঠিকমতো হজম হওয়ার সুযোগ পায়। কিন্তু খাওয়ার পরে স্নান করলে শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়। ফলে ক্ষতি হয় শরীরের।

আপনি যদি খাবার খাওয়ার আগে একান্তই স্নানর সুযোগ না পান তবে খাবার গ্রহণের অন্তত ঘণ্টা দুয়েক বাদে স্নান করবেন, তাতে করে এসব সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থাকবে না।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress