মেকআপ লুক বজায় রেখে এ ভাবে বার বার লাগিয়ে নিন সানস্ক্রিন, জেনেনিন

একটু একটু করে চড়ছে তাপমাত্রার পারদ। হালকা শীতের আমেজ যতই রাত সুখকর করুক না কেন সকালের দিকে রোদের দাপটে এখন থেকেই বিন্দু বিন্দু ঘাম জমছে কপালে। এ হেন অবস্থায় নিয়ম করে সানস্ক্রিন না লাগিয়ে বাড়ির বাইরে বেরোলেই ত্বকের বিপদ ডেকে আনা সম। তা সূর্য  শীতকালে তৈরি হওয়া ভিটামিন ডি-র ঘাটতি যতই মেটাক না কেন এর ক্ষতিরকারক অতিবেগুনি রশ্মি আপনার ত্বকের যে কী পরিমান ক্ষতি করতে পারে তা আজ আর কারও অজানা নেই। তাই দিনে শুধু একবার  সানস্ক্রিন লাগালে চলবে না। প্রয়োজনে কয়েক ঘন্টার অন্তর সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিত হবে। এক্ষেত্রে যারা মেকআপ ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরোন না তাদের সমস্যা হতে পারে। চিন্তা নেই মেকআপ আর সানস্ক্রিন কীভাবে লাগালে দু’টোর-ই ভাল ফল পাবেন দেখে নিন।

মেকআপের কিছু কসমেটিক্স যেমন এসপিঅফযুক্ত হয় তেমন আবার কিছুতে এসপিঅফ থাকে না। তাই মেকআপের আগে সানস্ক্রিন লাগিয়ে নেওয়াই সব থেকে ভাল। তাই সানস্ক্রিন যাতে আপনার মেকআপে কোনও প্রভাব না ফেলতে পারে তাই ময়শ্চারাইজার যুক্ত সামস্ক্রিন ব্যবহার করুন। কিংবা এমন ময়শ্চারাইজার বাছুন যা ব্রড স্পেকট্রাম প্রোটেকশন ফর্মুলাতে তৈরি। এটা মুখে ও গলায় ভাল করে লাগিয়ে নিন। ত্বকে আর্দ্রতা বজায় থাকলে মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী হবে। এরপর প্রাইমার, কনসিলার, বা অন্যকোনও মেকআপের কসমেটিক্স ব্যবহার করতে পারেন। এতে মুখের দাগ ছোপ যেমন ঢাকা পড়ে যাবে তেমন আবার মেকআপের হাজারো কসমেটিক্সে ও ত্বকের মাঝে এক সুরক্ষার পরতের কাজও করবে।

এ ভাবে ধাপে ধাপে করুন মেকআপ

প্রাইমার লাগিয়ে নিন। বিশেষ করে যাদের রোমকূপের ছিদ্র বড়ে তাদের ত্বক নিঁখুত করে তুলতে দারুণ কাজ করে প্রাইমার। এরপর ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফাউনডেশন বেছে লাগিয়ে নিন।  এবার বিউটি ব্লেন্ডার ভাল করে ফাউনডেশন ত্বকের সঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। যদি শুষ্ক ত্বক হয় তাহলে হাইড্রেটিং ফর্মুলা যুক্ত ফাউনডেশন ব্যবহার করুন। আর তৈলাক্ত হলে বাছুন ম্যাট ফিনিশ ফাউনডেশন।

মনের মতো মেকআপ লুক ফুটিয়ে তুলুন এ ভাবে

এবার পালা আইলাইনার থেকে শুরু করে মাস্কারা ও লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। পারলে ওয়াটারপ্রুফ প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন। তবে যদি সিম্পল লুক চান তাহলে এগুলোর মধ্যে কোনও একটা ব্যবহার করতে পারেন। কিংবা মেকআপের এই ধাপটা বাদ দিয়ে পরের ধাপে চলে যেতে পারেন।

এবার সেটিং স্প্রে দিয়ে মেকআপ সেট করার পালা

এসপিএফ যু্ক্ত সেটিং স্প্রে ব্যবহার করুন। সেটিং স্প্রে দিলে মেকআপও ভাল থাকবে দেখেতেও তরতাজা লাগবে।

সব শেষে আরও একবার সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন

গরমে ঘামে মেকআপ ঘেটে গেলে উঠে যেতে পারে সানস্ক্রিনও। তাই কয়েক ঘন্টা পর এসপিএফ যুক্ত মেকআপ পাউডার কিংবা মুখে পাফ করে নিন। কিংবা এসপিএফ যু্ক্ত সেটিং স্প্রেও ব্যবহার করতে পারেন।  এতে মেকআপ নষ্ট হবে না আবার আপনার ত্বকও ভাল থাকবে।bs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress