দ্রুত লম্বা চুল পেতে হেয়ার মাস্ক? জেনে নিন আরো কিছু তথ্য

নানা উপায়ে যত্ন নেয়ার পরও চুল আশানুরূপ লম্বা হচ্ছে না- এমন অভিযোগ থাকে বেশিরভাগ নারীরই। নানা কারণেই চুলের বৃদ্ধি মন্থর হতে পারে। পুষ্টির অভাবও এর একটি কারণ। তাই খাদ্যগ্রহণের মাধ্যমে তো বটেই, চুলে পুষ্টি নিশ্চিত করতে হবে বাইরে থেকেও। তাই চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে ব্যবহার করতে পারেন হেয়ার মাস্ক। ঘরে থাকা কিছু সহজলভ্য উপাদান দিয়েই তৈরি করতে পারেন এই হেয়ার মাস্ক। চলুন জেনে নেই-

আলুতে রয়েছে ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, নায়াসিন এবং জিংক এর মতো চুলের গ্রোথ বৃদ্ধিতে সহায়ক উপাদান। যা চুলের গ্রোথ বৃদ্ধিতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। পেঁয়াজে রয়েছে মিনারেলস এবং নিউট্রেশন। পেঁয়াজে বিদ্যমান সালফার কোলাজেন টিস্যু তৈরিতে সাহায্য করে হেয়ার গ্রোথকে প্রোমোট করে। এটি নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে।

পেঁয়াজ এবং আলুর হেয়ার মাস্ক তৈরি করার জন্য আলু এবং পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে নিন। এবার এগুলোকে ছোট ছোট টুকরা করে নিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। ব্লেন্ড করা হয়ে গেলে মিশ্রণটি একটি ছাঁকনির সাহায্যে ছেঁকে নিন। এই মিশ্রণটিই আপনার হেয়ার গ্রোথ মাস্ক।

গাজরে রয়েছে নিউট্রিয়েন্টস, ভিটামিন এ, কে, সি, বি১, বি৩, বি৬, বি২, ফাইবার, পটাশিয়াম, ফসফরাস যা, চুলের বৃদ্ধির জন্যে খুবই উপকারী। এছাড়াও গাজর স্কাল্পের ব্লাড সার্কুলেশন বৃদ্ধি করে, চুলকে সফট বানিয়ে দেয়, চুলের ড্যামেজ দূর করে, চুল ভেঙে যাওয়া রোধ করে।

গাজরের হেয়ার মাস্ক তৈরির জন্য গাজর ছোট ছোট টুকরো করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এর জুস ছাঁকনির সাহায্যে ছেঁকে নিন। এই ২ টি হেয়ার মাস্কই জুস কন্সেস্টেন্সির। তাই এগুলো একই নিয়মে ব্যবহার করতে হবে। আপনার সুবিধা অনুযায়ী যে কোনো একটি মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। তবে প্রত্যেকটি মাস্কই কার্যকরী।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress