April 14, 2024 | 9:03 AM

সবার জীবনেই প্রেম আসে। কেউ নিজেকে ইচ্ছে করেই প্রেম থেকে দূরে রাখতে চান, আবার বেশিরভাগই এই সুন্দর অনুভূতিটিকে জীবনে জায়গা করে দেন। সারাজীবন সুখে থাকার আশায় এই প্রেমের সম্পর্ক অনেকদূর পর্যন্ত এগিয়ে নিয়ে যান। সম্পর্ক চলাকালে একে অপরের কাছ থেকে অনেক কিছুই প্রত্যাশা করেন। এইটা স্বাভাবিক একটি বিষয়।
তবে এক্ষেত্রে সব প্রত্যাশা পূরণ হতে হবে তাও সঠিক নয়। সুখী সম্পর্ক চাইলে আপনাকে কিছু বিষয় অবশ্যই এড়িয়ে চলতে হবে। তবেই সম্পর্কে সুখ ধরে রাখা সম্ভব হবে। এছাড়াও আরও কিছু বিষয় আছে যা এড়িয়ে চললে সম্পর্ক সুখের হবে।

ভারতের ফ্যাশন ও জীবনধারাবিষয়ক বিখ্যাত সাময়িকী ফেমিনার এক প্রতিবেদনে এমন পাঁচ পরামর্শ দেয়া হয়েছে, যা সুখী সম্পর্কের ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। চলুন জেনে নেয়া যাক সেই পরামর্শগুলো-

সঙ্গীকে বদলানোর চেষ্টা করবেন না

যখন আপনি সম্পর্কে রয়েছেন, এর মানে দাঁড়ায়, সঙ্গী যেমনই হোক, আপনি তা মেনে নিয়েছেন। আপনার পছন্দ বা অপছন্দের ওপর নির্ভর করে তাকে বদলানোর চেষ্টা করাটা ঠিক নয়। আপনি বা আপনার সঙ্গী স্বভাবগতভাবে যেমন, তার ভেতর দিয়ে এগিয়ে যান। ভালো ও মন্দকে গ্রহণ করতে শিখুন। একসময় দুজনের বোঝাপড়াটা এমনিতেই দৃঢ় হয়ে যাবে।

আবেগ পুষে রাখবেন না

ছোট হোক বা বড়, সঙ্গীর যেকোনো বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করুন। নিজের ভেতর পুষে রাখলে এমনটাও হতে পারে, আপনি যেটাকে বড় করে দেখছেন, সেটা অত বড় কিছু না-ও হতে পারে। এছাড়া নিজের ভেতর কিছু পুষে রাখলে আপনার সঙ্গীকে বোঝার সুযোগটাও হারাবেন। সঙ্গীর সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করুন, এতে আপনার মনের ভেতর থাকা সংশয় দূর হবে।

দ্বন্দ্বে জড়াবেন না

একেবারে বিতর্কহীন মানুষ হওয়াটা খুবই কঠিন কাজ। তবে সম্পর্কের ক্ষেত্রে যেকোনো বিষয়ে মুখোমুখি দ্বন্দ্বহীন আলাপ জরুরি। যদি ভুল বোঝাবুঝি ও দ্বন্দ্ব জিইয়ে রাখেন, তবে সম্পর্কের ক্ষেত্রে তা জটিলতা বাড়াবে। তাই যেকোনো বিষয়ে দ্বন্দ্বে না জড়িয়ে বসুন, আলাপ করুন।

প্রাক্তনের সঙ্গে তুলনা করবেন না

আপনার সাবেক প্রেমিকার সঙ্গে বর্তমান সঙ্গীর তুলনা করবেন না। প্রত্যেকের নিজস্ব ভুলভ্রান্তি রয়েছে, কিন্তু অন্যের সঙ্গে তুলনা করার চেয়ে খারাপ কী হতে পারে। কারণ আপনারও তো অতীত রয়েছে। তাই বর্তমানের ওপর মনোযোগ দিন এবং সম্পর্ককে শক্তিশালী করতে জোর প্রচেষ্টা চালান। অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিন আর ভুলের পুনরাবৃত্তি করবেন না।

বিচ্ছেদের হুমকি দেবেন না

এই ভয়াবহ ভুলটি আপনার সম্পর্কের কালো মেঘকে আরো ঘন করে তুলবে, যা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। তর্কাতর্কি হতেই পারি, কিন্তু তাই বলে ছেড়ে যাওয়ার হুমকি পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে না। এতে সঙ্গীর মনে এ ধারণা জন্মাতে পারে, আপনি হয়তো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে অনিচ্ছুক। আর এভাবেই আপনাদের সম্পর্ক ইতির কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারে। তাই যুগলের কথাবার্তায় এ শব্দটি যথাসম্ভব এড়িয়ে যাওয়াই মঙ্গল।