জীবনযাপন

অ্যালকোহল থেকেও যে উপকার পাওয়া যায়, জানলে চমকে যাবেন আপনিও

লিভারের উপরে অ্যালকোহলের ক্ষতিকর প্রভাব সম্বন্ধে আমরা সকলেই জানি। কিন্তু এই অ্যালকোহলই কিন্তু আবার শরীরের অনেক উপকারেই লাগে। অ্যালকোহলের বেশ কয়েকটি উপকারিতাও রয়েছে যেগুলি সম্পর্কে হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। বিশেষজ্ঞদের মতে, একেক ধরনের অ্যালকোহলের একেক রকমের উপকারিতা। শারীরিক ক্লান্তি, মানসিক অবসাদ কাটানোর পাশাপাশি ব্যথা-বেদনা কমাতেও অ্যালকোহল পেইন কিলারের চেয়ে ভাল কাজ করে। অবশ্যই মাত্রা বুঝে খাওয়া উচিত। মাত্রা বুঝে না খেলেই বিপদ! জেনে নিন কোন ধরণের অ্যালকোহল থেকে কি ধরণের উপকার পাওয়া যায়-

১. ব্রান্ডিঃখুবই পরিচিত একটি অ্যালকোহল। চেহারায় বয়সের ছাপ পড়া রোধ কর‍তে, দীর্ঘদিন যৌবনদীপ্ত ত্বক আর চেহারার ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখতে সাহায্য করে ব্র্যান্ডি।

২. শ্যাম্পেনঃ হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে শ্যাম্পেন। নির্দিষ্ট পরিমাণ শ্যাম্পেন মাঝে মধ্যে খেতে পারলে আপনার হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো থাকবে, জানাচ্ছে গবেষণা।

৩. রেড ওয়াইনঃ মানসিক উদ্বেগজনিত সমস্যা কাটাতে রেড ওয়াইন খুবই উপকারী। তাছাড়া খাবার দ্রুত হজম করাতেও রেড ওয়াইন সাহায্য করে। তাই অল্প একটু খাওয়া যেতেই পারে মাঝে মধ্যে।

৪. রামঃ ঠান্ডা লেগে গলার ব্যাথা বা গলার সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে সব ঋতুতেই পান করা যায় এই অ্যালকোহলটি। শরীরের ম্যাজম্যাজ ভাব কাটাতে বা গা-হাত-পা এর ব্যাথা কমাতেও সাহায্য করে এই অ্যালকোহলটি।

৫. বিয়ারঃ জার্নাল অব অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড ফুড কেমিস্ট্রি-তে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে দাবি করা হয়েছে, মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে বিয়ার। শুধু তাই নয়, বিয়ার মস্তিষ্কের রিসেপটরে উৎকণ্ঠা কমিয়ে, স্নায়ু কোষগুলিকে শিথিল করে স্বস্তি দেয়।

৬. হুইস্কিঃ অল্প পরিমাণ খেলে শরীরের ওজন কমাতে খুবই উপকারী। তবে বেশি মাত্রায় খাওয়ার থেকে কিন্তু সাবধান।

৭. ভদকাঃ দাঁতের ব্যাথা কমাতে ভদকা খুবই উপকারী।

Related Articles

Back to top button