জীবনযাপন

সাবধান! এই চারটি খাবার খেলেই কিডনিতে হবে পাথর, জেনেনিন বিস্তারিত

চিকিৎসকদের মতে, কিডনির পাথর প্রতিরোধে ভারসাম্যপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস, পর্যাপ্ত পরিমাণ জল পান খুব গুরুত্বপূর্ণ। অনেক খাবার রয়েছে যেগুলো কিডনির পাথর হওয়ার প্রক্রিয়া বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই এগুলো এড়িয়ে যাওয়া বা কম খাওয়াই ভালো।

গবেশকদের মতে, প্রধানত এই চার ধরনের খাবারের কারনেই কিডনিতে পাথর জন্মায়। তাই এগুলিকে এড়িয়ে চলাটাই ভালো।

সোডিয়াম
কিডনি ভালো রাখতে লবণ কম খাওয়া ভালো। সোডিয়াম ক্যালসিয়াম তৈরিতে কাজ করে এবং এর আধিক্য হলে কিডনিতে পাথর হতে পারে। তাই প্রক্রিয়াজাত ফাস্টফুড এড়িয়ে চলুন; খাবারে লবণ কম ব্যব্হার করুন।

ভিটামিন সি
ভিটামিন সি এর মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি ভিটামিন কিডনির ক্ষতি করতে পারে-কথাটি শুনে নিশ্চয়ই অবাক হচ্ছেন? আসলে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন সি গ্রহণ শরীরের জন্য ভালো। তবে অতিরিক্ত ভিটামিন সি গ্রহণ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। দৈনিক ৫০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি খাওয়া ভালো। তবে এর বেশি ভিটামিন গ্রহণ অক্সালেট তৈরি করতে পারে। আর এ থেকে কিডনিতে পাথর হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

সফট ড্রিংক
ঠান্ডা ঠান্ডা সফট ড্রিংক খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। তবে সোডার মধ্যে থাকা ফসফরিক এসিড শরীরের জন্য ক্ষতিকর। কারণ, এতে ফসফেট রয়েছে। আর এটি কিডনিতে পাথর তৈরি করতে পারে। তাই এই পানীয়টি এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

প্রাণীজ প্রোটিন
হ্যাঁ, অতিরিক্ত প্রাণীজ প্রোটিন, যেমন, লাল মাংস, সিফুড ইত্যাদি বেশি পরিমাণ খাওয়া কিডনির পাথর তৈরি করতে পারে। এই ধরনের প্রাণীজ প্রোটিন ইউরিক এসিডের পরিমাণ বাড়ায় এবং সাইট্রেটের পরিমাণ কমায়। ইউরিক এসিড কিডনির পাথর তৈরি করতে পারে। তাই কিডনির পাথর প্রতিরোধে এই ধরনের খাবার কম খাওয়াই ভালো।

Related Articles

Back to top button