প্রতিদিন খালি পায়ে হাঁটার যে এত উপকার, জানলে চমকে যাবেন আপনিও

বাইরে ছাড়াও অনেকেই সারাক্ষণ বাড়িতেও জুতা পরে হাঁটেন। কিন্তু জানেন কি, জুতা পরে নয় খালি পায়ে হাঁটার মধ্যে লুকিয়ে আছে সুস্বাস্থ্যের চাবিকাঠি। খালি পায়ে হাঁটলে দেহের ভারসাম্য বাড়ে, ভঙ্গিমা সুন্দর হয়, কমে পায়ে চোট লাগার সম্ভাবনা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, খালি পায়ে হাঁটা স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ উপকারী। ঘাসের উপর পা ফেলে হেঁটে চলার আনন্দ উপভোগ্য হলেও, কংক্রিটের শহরে পর্যাপ্ত খোলা জায়গা ও মাঠ না থাকায় খালি পায়ে হাঁটার জো নেই। আর সুযোগ হলেও সময় হয়ে ওঠে না কারো। তবে শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা মোকাবিলায় ঘরের মধ্যে হলেও খালি পায়ে হাঁটার অভ্যাস করুন। এই অভ্যাস শরীরে কোন কোন সমস্যা দূর করবে? চলুন জেনে নেয়া যাক-

>> খালি পায়ে হাঁটার সময়ে পায়ের তলায় থাকা একাধিক সেন্সরি নার্ভের সক্রিয়তা বেড়ে যায়। শরীরের ভেতরে ইলেকট্রনের মাত্রা বেড়ে যায়। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী হয়ে ফলে নানাবিধ সংক্রমণের আশঙ্কা কমে।

>> অনিদ্রার সমস্যায় ভুগছেন? মুঠো মুঠো ওষুধ খেয়েও কাজ হচ্ছে না? খালি পায়ে হাঁটাহাটি করলে এই সমস্যা থেকেও মুক্তি পেতে পারেন। এই অভ্যাস সার্কাডিয়ান ছন্দকে স্থিতিশীল রাখে, যা ভাল ঘুমের জন্য দায়ী।

>> রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও এই অভ্যাস দারুণ উপকারী। খালি পায়ে হাঁটলে পায়ের পাতার স্নায়ুগুলো উদ্দীপিত হয়, মস্তিষ্কে এন্ডোরফিন নামক হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। ফলে মানসিক অবসাদ কমতে শুরু করে। মানসিক স্বাস্থ্য ভালো থাকলে রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

>> খালি পায়ে হাঁটলে মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাবে শরীরে রক্তচলাচলের হার বাড়ে। ফলে রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই নানাবিধ জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে।

>> বিভিন্ন গবেষণায় জানা গিয়েছে, খালি পায়ে ঘাসের উপর হাঁটলে পায়ের তলায় থাকা একাধিক প্রেসার পয়েন্টে চাপ পড়ে। এসব প্রেসার পয়েন্টের সঙ্গে চোখের সরাসরি যোগসূত্র আছে। ফলে পায়ের তলায় যত চাপ পরে ততেই দৃষ্টিশক্তির উন্নতি হয়।

>> খালি পায়ে হাঁটলে মস্তিষ্কের স্নায়ুগুলো অতিরিক্ত মাত্রায় সক্রিয় হয়ে ওঠে। এই অভ্যাস স্মৃতিশক্তি বাড়াতেও সাহায্য করে।rs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress