ওজন কমাতে গোল মরিচের চায়ের বিশেষ উপকার, সম্পর্কে জেনেনিন বিস্তারিত

ওজন কমানোর প্রসঙ্গ এলে গোল মরিচের নাম আসবেই। এটি মশলা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে দীর্ঘকাল ধরে। বিভিন্ন ধরণের রান্নায় স্বাদ যুক্ত করতে গোল মরিচ মশলা হিসেবে বিশ্বজুড়ে ব্যবহৃত হয়। গোল মরিচ এক ধরনের তেল তৈরিতে ব্যবহৃত হয়, যা বাতজনিত রোগীদের জন্য বেশ উপকারী। এমনটাই প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ওজন কমানোর জন্য গোল মরিচ
গোল মরিচ ভিটামিন এবং খনিজ দিয়ে বোঝাই, যা একে একটি দুর্দান্ত সুপারফুড হিসেবে তৈরি করে। এই উপাদানগুলো বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যগত সমস্যা নিরাময়ে সাহায্য করে। পাশাপাশি বিপাকক্ষমতা বাড়িয়ে ওজন হ্রাস প্রক্রিয়াটিকে গতিময় করে তোলে।

মশলাটি ভিটামিন এ, কে, সি এবং ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম ও সোডিয়ামের মতো খনিজ দিয়ে পরিপূর্ণ। এছাড়াও গোল মরিচ স্বাস্থ্যকর ফ্যাট এবং ডায়েটরি ফাইবার সমৃদ্ধ। গবেষণায় দেখা গেছে যে, মশলাদার খাবার থার্মোজেনিক প্রভাবের কারণে খাবার বিপাক করতে সহায়তা করে। খাবারের থার্মোজেনিক এফেক্ট বা খাবারের তাপীয় প্রভাবকে (টিইএফ) যে পরিমাণে খাদ্য গ্রহণের পরে আপনার দেহ ক্যালোরি পোড়ায় সেই হারের স্পাইক হিসাবে উল্লেখ করা হয়। এটি বিশ্বাস করা হয় যে, থার্মোজেনিক প্রভাব ক্যালোরি ঝরানোর সংখ্যাকে প্রভাবিত করতে পারে এবং দ্রুত ওজন কমাতে পারে।

গোল মরিচে পাইপারিন রয়েছে, এটি একটি যৌগ যা হজম এবং বিপাকীয় কার্য সম্পাদনকে উন্নত করে। এই যৌগটি শরীরে ফ্যাট জমতে বাধা দেয় এবং স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

গোল মরিচের অন্যান্য সুবিধা:

গোল মরিচে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যা ফ্রি র্যাডিকালের ক্ষতিকারক প্রভাব প্রতিরোধ বা বিলম্বিত করার ক্ষমতা রাখে।
এটি শরীরে পুষ্টির শোষণে সহায়তা করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে। গোল মরিচের অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য বাত, মৌসুমী অ্যালার্জি এবং হাঁপানিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য উপকারী।
পাইপারিন মস্তিষ্কের ক্রিয়া এবং রক্তে শর্করার বিপাক উন্নত করতেও সহায়তা করতে পারে।

গোল মরিচের চা:
খাবার তৈরিতে গোল মরিচ ব্যবহার করা এর পুষ্টিগুণের সুবিধা পাওয়ার সহজ উপায়। তবে খাবারে এই মশলার পরিমাণ বেশ কম থাতে।

সুতরাং, এর সব সুবিধা পাওয়া সম্ভব হয় না। তাই ওজন দ্রুত কমানোর জন্য গোল মরিচের চা তৈরি করে খেতে পারেন। জেনে নিন কীভাবে তৈরি করবেন-

উপকরণ:
১/৪ চামচ গোল মরিচ
১ ইঞ্চি আদা
১ টেবিল চামচ মধু
১ টেবিল চামচ লেবুর রস
১ কাপ জল।

যেভাবে তৈরি করতে হবে:
একটি পাত্রে জল, গোল মরিচ এবং কুচি করা আদা নিন। জল পাঁচ মিনিটের জন্য ফুটতে দিন এবং তারপরে চুলা বন্ধ করে দিন। এক কাপে চা ছেঁকে নিয়ে তাতে লেবুর রস এবং মধু যোগ করুন। এবার পান করুন গোল মরিচের চা।

সতর্কতা:
গোল মরিচ স্বাস্থ্যকর, তবে বেশি খেলে উচ্চ মাত্রায় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা হতে পারে। একদিনে ১/২ চা চামচ বেশি গোলমরিচ খাবেন না। এছাড়াও, চা সবার জন্য উপকারী না-ও হতে পারে। প্রথমবার এই চা পান করার পরে যদি খাদ্যনালী এবং পেটে জ্বালা অনুভব করেন তবে এটি এড়িয়ে চলুন।rs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress