এই মন্দিরে প্রসাদী হিসেবে কি পাওয়া যায় শুনলে চমকে যাবেন

More articles

আপনি মন্দিরে গেলেন পুজো দিলেন কিন্তু প্রসাদ হিসেবে ফল মিষ্টি নয় যদি পান সোনার গহনা মন তখন কী হবে?আনন্দ ভয় নাকি বিস্ময়?এমনটা শুনে ভাবছেন নিশ্চয় গল্প বেধেছি না একেবারেই নয় কোন ও গল্প বা ঠাকুমার ঝুলি এমনটাও হয় ঘটে আমাদের ভারতেই।বিশ্বাস না হয় যান একবার উত্তরপ্রদেশ গিয়েই দেখুন কী কান্ড।উত্তরপ্রদেশের এক লক্ষ্মী দেবী মন্দিরে প্রসাদ বলতে যা পাওয়া যায় সেটা সোনার দামি-দামি গহনা।

বিশ্বাস হচ্ছেনা কিন্তু আদতে এটাই সত্যি। এজন্য বহু দূর থেকে মানুষ আসেন।এত নাম এই মন্দিরের এ কারণেই।কিন্তু সারাবছর ই কি এমনটা হয়?না।একটা বিশেষ সময় আছে।সারাবছর এমনটা হলে ত সবার ভাল হত যদি মন্দিরে গিয়ে পাওয়া যেত প্রসাদী গহনা তাহলে মানুষের দুঃখের ও অবসান হত।না বছরের একটা নিদির্ষ্ট সময় যারা যায় তারা সবাই পায় প্রসাদী গহনা ।

বছরের মধ্যে কিছু নির্দিষ্ট দিন রয়েছে যখন মন্দিরের ভিতর কুবের দেবের অবস্থান ঘটে। তখনই মন্দিরে রাতের বেলায় দেবী লক্ষ্মীর গায়ে উদয় হয় একের পর এক গয়না। বছরের কিছু নির্দিষ্ট দিনের পর আবার পাল্টে যায় সব সাধারণ।তখন আবার যে কে সেই ।আবার এক বছরের অপেক্ষা বহু মানুষ কার্যত এই প্রসাদের লোভেই আসেন।

Latest