রোজ পরোটা খেয়েও আপনি ওজন কমাবেন যেসব উপায়ে, দেখেনিন

পরোটা খেতে ছোট-বড় সবারই ভালো লাগে। অনেকেই মুখে রুটির বদলে পরোটা তুলে নেন। এর কারণ হলো পরোটা তেল দিয়ে ভাজা হয়। ফলে এর স্বাদ রুটির চেয়ে দ্বিগুণ বেড়ে যায়।

তবে শরীরের জন্য পরোটার চেয়ে রুটি বেশি উপকারী। এ কারণে ওজন কমাতে হলে প্রথমেই ছাড়তে হয় তেলে ভাজা খাবার খাওয়া। যার মধ্যে পরোটা অন্যতম।

তবে আপনাকে যদি বলা হয়, পরোটা খেয়েও ওজন কমানা সম্ভব তাহলে নিশ্চয়ই অবাক হবেন! আসলে এমন কিছু উপকরণ দিয়ে পরোটা তৈরি করা যায়, যেগুলো খেলে শুধু ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে তা নয়, ওজনও কমবে দ্রুত। জেনে নিন কোন কোন পরোটা খেলে কমবে ওজন-

>> কখনো পেঁয়াজের পরোটা খেয়েছেন? নাম শুনেই নিশ্চয়ই চমকে উঠেছেন! জানেন কি, এতে আছে প্রচুর পরিমাণে কোলাজেন ও ভিটামিন সি। যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

>> পালংশাক স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী তা নিশ্চয়ই সবার জানা। ভিটামিন বি, ই, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও মাইক্রোনিউটিয়েন্ট সমৃদ্ধ পালংশাকের পরোটা ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

এ ছাড়াও পালং শাকে ক্যালোরি কম থাকে। পালংশাক দীর্ঘ সময়ের জন্যে পেট ভর্তি রাখে। ফলে বারবার খাওয়ার প্রবণতা অনেকটাই কমে। তাই চাইলেই পালং শাক দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন পরোটা।

>> অনেকেই মেথির পরোটা খেয়ে থাকবেন! মেথিতে থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। যা দ্রুত হজম করাতে সাহায্য করে। মেথি রক্তে গ্লুকোজের মাত্রাকে ঠিক রাখে।

এ ছাড়াও মেথির অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান শরীরকে ক্ষতিকারক উপাদান থেকে বাঁচায়। রান্নাঘরের এই উপাদান দিয়েও তৈরি করে নিতে পারেন মেথি পরোটা।

কীভাবে তৈরি করবেন স্বাস্থ্যকর পরোটা?

এসব পরোটা তৈরির ক্ষেত্রে বেশি তেল বা ঘি ব্যবহার করবেন না। পরোটার সঙ্গে খেতে পারেন টকদই। এতে হজম প্রক্রিয়াও ভালো হবে।

সাধারণ আটা বা ময়দার পরিবর্তে খান জোয়ার, বাজরা বা রাগির ময়দা। এমন ময়দা দিয়ে পরোটা তৈরি করুন। কারণ এই উপাদানগুলোতে থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। যা দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress