উচ্চ রক্তচাপের সাথে সাথে এই ৮ রকমের রোগ সারাবে যে তেল!

উচ্চ রক্তচাপ ভয়ঙ্কর পরিণতি ডেকে আনতে পারে। অনেক সময় উচ্চ রক্তচাপের কোনো প্রাথমিক লক্ষণ দেখা যায় না। নীরবে উচ্চ রক্তচাপ শরীরের বিভিন্ন অংশকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। এ জন্যই উচ্চ রক্তচাপকে ‘নীরব ঘাতক’ বলা যেতে পারে।

অনিয়ন্ত্রিত এবং চিকিৎসাবিহীন উচ্চ রক্তচাপ থেকে মারাত্মক শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে। উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

একটি তেল রয়েছে, যা ব্যবহার করলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এটি হচ্ছে তিলের তেল। তিলের বীজ ক্ষুদ্র হলেও এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস, ভিটামিন ই, বি কমপ্লেক্স ভিটামিন, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মতো খনিজ থাকে। এর থেকে তৈরি তেল শুধু রান্নার জন্যই নয়, চিকিৎসার ক্ষেত্রেও দারুণ উপকারী।

তিলের তেলে রয়েছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা। আসুন জেনে নিই তিলের তেলের স্বাস্থ্য উপকারিতা-

১. রান্নায় এ তেল ব্যবহার করতে পারেন। গবেষণায় দেখা গেছে যে, এটি রক্তচাপের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে।

২. এই তেলে থাকা ম্যাগনেসিয়াম রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে। এ ছাড়া এতে থাকা ভিটামিন ই এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে।

৩. বিভিন্ন গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, তিলের তেল ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী।

৪. তিলের বীজের ব্যবহারে ত্বকে আর্দ্রতা বজায় রাখে ও বলিরেখা প্রতিরোধ করে। প্রাকৃতিক সানস্ক্রিন হিসেবেও এ তেল ব্যবহার করা যেতে পারে।

৫. তিলের তেলে থাকা ক্যালসিয়াম হাড় শক্ত রাখে ও কপার, জিঙ্ক এবং ম্যাগনেসিয়াম হাড়ের জন্য দারুণ উপকারী।

৬. মুখগহ্বর ও ক্ষুদ্রান্ত্র পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি দাঁত ঝকঝকে করতেও তিলের তেল ব্যবহার করতে পারেন।

৭. তিলের তেলে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় এটি হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

৮. তিলের তেল দিয়ে মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করলে তা রক্ত সঞ্চালনের উন্নতি করে এবং চুলের বৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress