কখন খাবার খেলে দ্রুত ওজন কমবে? দেখেনিন একঝলকে

মূলত আমাদের খাদ্যাভ্যাসের ওপরই নির্ভর করে শরীরের ওজন বৃদ্ধি কিংবা হ্রাস পাওয়া। যদি আপনি অধিক ক্যালোরিযুক্ত খাবার গ্রহণ করেন এবং শরীরচর্চার মাধ্যমে ক্যালোরি খরচ না করেন, তাহলে দিনশেষে ওজন কিন্তু বেড়েই চলবে।

তবে, আপনি কী খাচ্ছেন তারচেয়ে ঠিক কোন সময়ে খাবারটা গ্রহণ করেন সেটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

প্রতিবেলায় সব ধরনের খাবার খাওয়া যাবে না, এজন্য নিয়ম মেনে খাবার খাওয়া প্রয়োজন। সকাল, দুপুর ও বিকেলে প্রতিবেলা খাবারের আলাদা আলাদা গুরুত্ব রয়েছে। ওজন কমাতে এবং সর্বোচ্চ উপকার পেতে প্রধান তিনবেলা খাবারে কখন কী খাওয়া উচিত তা প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া

সকালের নাস্তা:
দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাবার হিসেবে ধরা হয় সকালের নাস্তা বা ব্রেকফাস্টকে। যার মাধ্যমে আমাদের মেটাবোলিজম কাজ শুরু করে এবং সারাদিন চলার শক্তি যোগায়। প্রোটিন, কার্বস এবং ফ্যাট জাতীয় খাদ্য ব্রেকফাস্টের জন্য উপযোগী। তবে ওজন কমানোর ক্ষেত্রে, ডিনার এবং ব্রেকফাস্ট করার আগ পর্যন্ত কমপক্ষে ১২ ঘণ্টার ব্যবধান রাখা উচিত। যেমন- আপনি ডিনার করলেন রাত ৮:৩০ টায়, ঠিক পরদিন সকাল ৮:৩০ টায় ব্রেকফাস্ট করবেন। সবচেয়ে ভালো উপায় হলো, সকালে কুসুম গরম জল পানের ১৫ মিনিট পর নাস্তা করা এবং দিনশেষে ডিটক্স জল পান করা।

দুপুরের খাবার:
অনেকের কাছে ভুড়িভোজের অন্যতম সময় হলো লাঞ্চটাইম, তবে ওজন কমানোর ক্ষেত্রে সবচেয়ে কম প্রভাব ফেলে এই দুপুরের খাবার। যদি খুব বেশি স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে না চান তাহলে লাঞ্চটাইমে সেগুলো রাখতে পারেন। কিন্তু খুব অল্প পরিমাণে যাতে আপনার ক্ষুধা নিবারণ হয়। যদি আপনি সকাল ৮:০০ টায় ব্রেকফাস্ট করে থাকেন তাহলে চেষ্টা করবেন দুপুর ১-২:০০ টার মধ্যে লাঞ্চ সেরে নিতে। যা আপনার শরীরে হজম ক্রিয়ায় সহায়তা করবে।

রাতের খাবার:
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রাতের খাবার খেয়ে নিন। রাতে ঘুমানোর ২-৩ ঘণ্টা আগে ডিনার করে নেয়া উচিত যা আপনার শরীরের ক্যালোরি খরচ করতে সাহায্য করবে। বলা হয়ে থাকে যে, বদহজম হওয়ার অন্যতম কারণ রাতের খাবার খাওয়ার সাথে সাথে বিছানায় শুয়ে পড়া। ভরাপেটে ঘুমাতে যাওয়া ওজন কমানো এবংবিরামহীন ঘুমের বাঁধার কারণও বটে। যদি আপনি ওজন কমাতে চান তাহলে রাত ৮:০০ টার মধ্যে ডিনার করে ফেলুন। যার ফলে আপনার শরীরের ক্যালোরি বার্ন হবে এবং ব্লাড সুগার লেভেল ঠিক থাকবে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress