চোখ উঠেছে? জেনে নিন সুস্থ থাকার উপায় সম্পর্কে কিছু তথ্য

চোখ ওঠা এমনই এক সমস্যা যা খুব মারাত্মক না হলেও ভীষণ অস্বস্তিদায়ক। এই সমস্যা গুরুতর নয় তাই আক্রান্ত হওয়ার সপ্তাহখানেকের মধ্যে নিজ থেকেই সেরে যায়। তবে এই সময়টুকুই বেশ পীড়া দিয়ে থাকে। চোখ ওঠা সমস্যায় ভয় না পেয়ে কিছুটা যত্ন নিলেই সেরে যায়। জেনে নিন-

যে কারণে চোখ ওঠে :

চোখ ওঠার জন্য অপরিষ্কার জীবনযাপন দায়ী। চোখ ওঠা হতে পারে ব্যাকটেরিয়া দিয়ে। এছাড়া ভাইরাস আক্রমণের কারণেও চোখ ওঠার সমস্যা হতে পারে। বেশিরভাগ সময় ভাইরাসের কারণে চোখ ওঠে।

চোখ ওঠার লক্ষণ :

* চোখ লাল হয়ে যায়।
* ঘুম থেকে ওঠার পর চোখ আঠা আঠা লাগে।
* সবসময় চোখের ভেতর কিছু একটা পড়েছে এমন অনুভূতি হয়।
* চোখ চুলকায় এবং জ্বালাপোড়া করে।
* আলোর দিকে তাকালে অস্বস্তি লাগে।
* সবকিছু দেখতে ঘোলা ঘোলা লাগে।
* চোখ দিয়ে জল পড়ে।
* চোখের কোনায় ময়লা জমে।
* চোখ ফুলে যায়।

চোখ উঠলে করণীয় :

চোখ উঠলে অনেকে বারবার জল দিয়ে পরিষ্কার করেন বা চোখে জলর ঝাপটা দেন। এটি একদমই করতে যাবেন না। শুধু সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরে চোখে জল দিয়ে পরিষ্কার করে নেবেন। খেয়াল রাখতে হবে, নোংরা জল, ধুলাবালি, দূষিত বাতাস যেন চোখে প্রবেশ না করে।

চোখ উঠলেও নিত্যদিনের অনেক কাজ থেকে বিরত থাকা সম্ভব হয় না। আর সেজন্য বাইরে বের হতেই হয়। এই সময়ে বাইরে হতে হলে সানগ্লাস পরে নেবেন। এটি রোদের কারণে চোখ জ্বলা থেকে মুক্তি দেবে।

চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির রুমাল, কাপড়চোপড়, তোয়ালে অন্য কারো ব্যবহার করা ঠিক না। কারণ এটি ছোঁয়াচে রোগ। তাই এটি দ্রুত ছড়ায়। এমনকী হ্যান্ডশেকের মাধ্যমেও অন্যরা আক্রান্ত হতে পারেন।

দৃষ্টি ঝাপসা হলে, চোখ খুব বেশি লাল হলে, খুব বেশি চুলকালে বা অতিরিক্ত ফুলে গেলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress