December 9, 2023 | 10:44 AM

করোনা মহামারি শুরুর পর থেকেই মানুষের মাঝে সুস্থ থাকার প্রবণতা বেড়েছে। এ কারণে শরীরচর্চার প্রতি আগ্রহ বেড়েছে কমবেশি সবার। ভালো খাওয়া ও নিয়মিত ব্যায়াম হলো সুস্বাস্থ্যের মূলমন্ত্র। রোগমুক্ত জীবনধারণ করতে শরীরচর্চার বিকল্প নেই।

এসব কারণেই ২০২১ সালে শরীরচর্চার প্রতি ছোট-বড় সবারই আগ্রহ বেড়েছে বিগত কয়েক বছরের তুলনায়। স্বাস্থ্যকর জীবনধারার জন্য যে যেভাবে পারছেন অর্থাৎ ঘরে, বাইরে কিংবা জিমে নিয়মিত শরীরচর্চা করছেন অনেকেই। চলুন জেনে নেওয়া যাক ২০২১ সালের বর্ষসেরা ৭ ব্যায়াম সম্পর্কে-

আউটসাইড ওয়ার্কআউট

২০২১ সালে হার্ট অ্যাটাকের কারণে অসংখ্য তরুণের মৃত্যু হয়েছে। যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এর কারণ হিসেবে অনেক বিশেষজ্ঞই বলেছেন, ২০২০ সালে লাগাতার লকডাউন ও জিম-পার্ক বন্ধ থাকায় অনেকেই ঘর থেকে বের হননি।

আর ঘরে থাকা মানেই বেশি খাওয়া-দাওয়া। এর ফলে অনেকের ওজন বেড়েছে। যা পরবর্তীতে বিভিন্ন রোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ কারণে ২০২১ সালের আউটসাইড ওয়ার্কআউট বা বহিরাঙ্গনে ব্যায়ামের প্রবণতা বেড়েছে অনেকের মধ্যে।

দৌড়

নিজেকে সক্রিয়, ফিট ও চলার একটি দুর্দান্ত উপায় হলো দৌড়ানো। বর্তমানে অনেকেই নিজেকে সুস্থ রাখতে বেছে নিয়েছেন দৌড়। এটি কেবল একটি বায়বীয় ব্যায়ামেরই দুর্দান্ত ফর্ম নয় বরং শ্বাস-প্রশ্বাস, হৃদস্পন্দন ও স্ট্যামিনা বাড়াতে সাহায্য করে।

এমনকি দৌড় হলো কার্ডিও-ভাসকুলার ওয়ার্কআউটের একটি দুর্দান্ত রূপ। হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতেও বিরাট ভূমিকা রাখে দৌড়।

হাঁটা

দৈনিক অন্তত ৪৫ মিনিট দ্রুতগতিতে হাঁটা সুস্বাস্থ্যের অন্যতম এক উপায়। দৌড়ের চেয়ে অনেক ভালো হলো হাঁটা। এক্ষেত্রে দ্রুত হাঁটতে হবে।

ওজন কমানো থেকে শুরু করে শরীর সুস্থ রাখতে হাঁটার কোনো বিকল্প নেই। দ্রুত হাঁটলে হার্ট রেট ও শ্বাস-প্রশ্বাসের ছন্দে ভারসাম্য বজায় রাখে। ২০২১ সালে সবার মধ্যেই হাঁটার প্রবণতা বেড়েছে।

হাইকিং

প্রকৃতির ট্রেইল বরাবর বা দীর্ঘ, ঘুরানো রাস্তায় দীর্ঘ হাঁটা হাইকিং নামে পরিচিত। ২০২১ সালে শারীরিক কার্যকলাপ হিসেবে হাইকিং জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

পাহাড়ি এলাকায় ঘুরতে গেলে সহজেই হাইকিং করা যায়। একদিকে ভ্রমণও যেমন হয় অন্যদিকে প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হাইকিংয়ের মাধ্যমে। এমনকি শারীরিক ও মানসিক সুস্বাস্থ্যও মেলে এর মাধ্যমে।

শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম

করোনাকালে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়ামের প্রতি মানুষ বেশি ঝুঁকেছেন। ফুসফুস ভালো রাখতে এই ব্যায়ামের বিকল্প নেই।

ফুসফুসকে আরও গতিশীল করে ও এর কর্যকারিতা বাড়াতে পারে ব্রিদিং এক্সারসাইজ। শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়ামগুলোর মধ্যে ২০২১ সালে জনপ্রিয়তা পেয়েছে বেলি ব্রিদিং ও অলটারনেট নস্ট্রিল ব্রিদিং।

বেলি ব্রিংদিং একটি চমৎকার ব্যায়াম যা ফুসফুসের ক্ষমতা আরও বাড়ায়। এ ধরনের শ্বাস-প্রশ্বাস ডায়াফ্রামিক পেশীকে শক্তিশালী করে। এক্ষেত্রে নাক দিয়ে পেট ভর্তি করে শ্বাস নিয়ে কিছুক্ষণ আটকে রেখে এরপর মুখ দিয়ে বের করে দিতে হয়ে।

অন্যদিকে অলটারনেট নস্ট্রিল ব্রিদিং শরীরের কার্ডিও ভাস্কুলার ফাংশন উন্নত করে ও হৃদস্পন্দন কমায়। এটি শ্বাস প্রশ্বাসের দুর্দান্ত এক ব্যায়াম, যা ফুসফুস ও হৃদযন্ত্রের উন্নতিতে সাহায্য করে।

এক্ষেত্রে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি দিয়ে এটি নাক ফুঁটো চেপে ধরুন আর অন্যটি দিয়ে শ্বাস নিন। এরপর কিছুক্ষণ শ্বাস ধরে রেখে চাপ দিয়ে ধরে রাখা নাক দিয়ে বাতাস বের করে দিন।

একইভাবে এক নাক দিয়ে শ্বাস নিন অন্যটি দিয়ে ছাড়ুন। পাঁচ মিনিট পর্যন্ত চক্রটি একাধিকবার পুনরাবৃত্তি করুন। এরপর বাম নাকের ছিদ্র দিয়ে শ্বাস ছেড়ে এই ব্যায়াম শেষ করুন।