April 12, 2024 | 7:49 PM

বিশেষজ্ঞদের মতে, যেহেতু কথা বলার জন্য সবথেকে বেশই কন্ঠস্বরের ব্যবহার করা হয়। তার ফলে স্বরযন্ত্রে ঠাণ্ডা হাওয়ার প্রভাব পড়ে বেশি। তাতেই হঠাৎ করে সর্দি, কাশি ও শেষে ঠাণ্ডা লেগে বসে যায় গলার স্বর কিংবা গলাব্যথা হয়।

> আদা, মধু, পাতি লেবু সাধারণ সব বাড়িতেই থাকে। ফলে হরেকরকমের এই উপাদানগুলো দিয়ে চা পান বেশ উপকারী হয়। এতে যেমন গলার উপশম হবে তেমনই রক্ষা পাবেন ঠাণ্ডার হাত থেকেও।

> আদা দেয়া চা খেতে পারেন বারে বারে। তাতে গলার উপশম ও হবে, সঙ্গে বাড়াবে রোগ প্রতিরোধের শক্তিও।

> অনেক সময় মধু দিয়ে আদা কুচি মুখে রাখলেও মিলবে সুফল। তাতেও দূর হবে গলার সমস্যা।

> গলার স্বরকে সুন্দর রাখতে হালকা উষ্ণ জলে গারগেল ও করতে পারেন। তাতে গলার স্বর ঠিক রাখার পাশাপাশই দূর হবে করোনা সংক্রমণের ভয়ও।

> অ্যাপেল স্লাইড ভিনিগারেও থাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা সর্দি-কাশি কমাতে সাহায্য করে। সঙ্গে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া রোধে সাহায্য করে।

এভাবেই ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহার করে সুস্থ রাখুন নিজেকে। তাতেই মিলবে সুফল।