জীবনযাপন

সহজেই ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়

জীবনে চলার পথে আমরা নানান ধরণের রোগে আক্রান্ত হই। ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ থেকে শুরু করে মৃত্যু রোগ ক্যান্সার আমাদের জীবনকে করে দেয় অচল। তবে এর মধ্যে কিছু রোগ রয়েছে যা আমরা খাওয়া-দাওয়া এবং অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রার কারণেই ডেকে আনি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এগুলো জিনগত সমস্যার কারণেও হতে পারে। যার মধ্যে ইউরিক অ্যাসিড অন্যতম। খুব কম বয়সেও এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

আপনার যদি ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যা থাকে অথবা পরিবারের কেউ ভুক্তভোগী হন তবে কীভাবে নিজেদের সুস্থ রাখবেন তা জেনে নিন-

ভিটামিন সি খান
খাদ্য তালিকায় ভিটামিন সি রাখুন। লেবু, জাম্বুরা, আমলকি, আমড়া ইত্যাদি টক জাতীয় ফল অবশ্যই খাবেন। মনে রাখবেন ভিটামিন সি ইউরিক অ্যাসিডের অব্যর্থ ওষুধ।

তেল মশলা কম খান
রান্নায় তেল মশলা কম দিন। এছাড়াও বড় মাছ, রেড মিট, দুধ, বেকন, মেটে, চিনি এড়িয়ে চলুন। তালিকা থেকে অ্যালকোহল বাদ দিন। হ্যাম এবং বিফ একদম খাবেন না। ডিম, সামুদ্রিক মাছও এড়িয়ে চলুন।

লো ক্যালোরির খাবার খান
ফ্যাট ফ্রি দুধ খাওয়া শুরু করুন। এছাড়াও পিনাট বাটার, ফল, শাকসবজি বেশি পরিমাণে খান। শস্যদানা, রুটি, আলু চলতে পারে। দুধ ও চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি খাওয়ার অভ্যেস করুন।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন
জিম, হাঁটা, সাঁতার যে কোন একটা প্রতিদিন রুটিনে রাখুন। ওজন কোনো ভাবেই বাড়তে দেবেন না। রক্তচাপ, কোলেস্টেরল, হার্টের রোগ থাকলে ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ফলে সব সময় নিজের শরীরের প্রতি যত্নশীল হোন।

অ্যালকোহল এড়িয়ে চলুন
বাজারচলতি জুস, কোল্ড ড্রিংক, লস্যি, অ্যালকোহল একদমই খাবেন না। এতে মেটাবলিজমে সমস্যা হয়। চায়ের বদলে কফি খাওয়া অভ্যেস করুন।

Related Articles

Back to top button