টনসিলের সমস্যা দূর করুন ঘরুয়া পদ্ধতির মাধ্যমে

আমরা অনেকেই টনসিলের সমস্যায় ভুগে থাকি। ছোট বড় সকলেরে এই সমস্যা হতে পারে। জিহ্বার পিছনে গলার নিচে দুই দিকে যে মাংসপিণ্ডের মতো অংশ দেখা যায় ওই অংশটির নামই হল টনসিল। টনসিল দেখতে মাংসপিণ্ডের মতো হলেও এটি হল এক ধরনের কোষ। টনসিল থাকার ফলে আমাদের শরীরে নাক, গলা, মুখ সাইনাস হয়ে কোনো রোগ জীবাণু আমাদের অন্ত্রে বা পেটে প্রবেশ করতে পারে না। কিন্তু এই টনসিলের যখন সমস্যা হয় তখন আমাদের গলা ব্যথার সৃষ্টি হয়।

গলায় এত ব্যথা অনুভব হয় যে কোনো খাবার খাওয়া যায় না। যাদের টনসিলের সমস্যা আছে তারা শীতকালে ঠান্ডা লেগে টনসিলের জন্য গলা ব্যথায় ভোগেন। গলা ব্যথা সাধারণত টনসিলের কারণে হয়ে থাকে। এবার ঘরোয়া এক পদ্ধতির মাধ্যমে টনসিলের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে। টনসিলের সমস্যার জন্য আপনার কাজে আসতে পারে লেবুর রস, মধু মিশ্রিত সবুজ চা, হলুদ দুধ।

লেবুর রস: শরীরের নানা সমস্যার সমাধানে লেবুর রস খুবই কাজে আসে। আপনার যদি টনসিলের সমস্যার জন্য গলা ব্যথা হয় সে ক্ষেত্রে আপনি লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। এক গ্লাস ঈষৎ উষ্ণ গরম জলে এক চামচ লেবুর রস এক-চামচ মধু ও স্বাদমতো নুন ভালো করে মিশিয়ে পান করুন। যতদিন না আপনার গলা ব্যথা সম্পূর্ণ নির্মূল হচ্ছে ততদিন সকালে আপনি এটি পান করুন দেখুন ফল ভাল পাবেন।

মধু মিশ্রিত সবুজ চা: আমাদের শরীরের জন্য সবুজ চা অর্থাৎ গ্রিন টি খুবই উপকারী। এক কাপ গরম জলে আধা চা-চামচ সবুজ চা ও মধু ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর ওই চা পান করুন দেখুন আপনার গলা ব্যাথা কয়েকদিনের মধ্যেই কমে যাবে। দিনে তিন চারবার এইরকম করে চা পান করুন ভালো উপকার পাবেন। গ্রীন টি তে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট তাই একটি জীবাণু দূর করতে সাহায্য করে।

হলুদ দুধ: দুধের সঙ্গে এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে পান করলে টনসিলের ব্যথা দূর হয়ে যাবে। ছাগলের দুধ টনসিলের সমস্যা উপশমে সাহায্য করে। ছাগলের দুধে আছে অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান তাই এটি টনসিলের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। যদি ছাগলের দুধ পাওয়া না যায় তাহলে সেক্ষেত্রে গরুর দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে সেবন করতে পারেন। হলুদে আছে অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা গলা ব্যথা ও টনসিলের সংক্রমণ কমাতে সাহায্য করে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress