Big Breaking : ২ দিনের বন্ধ ডাকল, জেনে নিন কবে?

More articles

আজ লোকসভায় পেশ হলো নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ২০১৯। বিলটি পেশ হওয়ার সাথেই উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলি অশান্ত হয়ে উঠলো। অসম সহ উত্তর পূর্বের একাধিক রাজ্যে সোমবার সকাল থেকেই এই বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন হতে থাকে।

এর মধ্যেই নর্থ ইস্ট স্টুডেন্টস অর্গানাইজেশন (Neso) গোটা উত্তরপূর্ব ভারত জুড়ে দুদিনের বন্ধের ডাক দিয়েছে। তাদের দাবি, এই বিলটি অসম চুক্তির অবমাননা। শুধুমাত্র অসমই নয়, ত্রিপুরা, মনিপুর, মিজোরাম সব জায়গাতেই চলছে বিক্ষোভ কর্মসূচি। আজ সকালে বিক্ষোভকারীরা গুয়াহাটি সহ একাধিক জায়গায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, অসমের উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার কুশপুত্তলিকা দাহ করে।

ছাত্র সংগঠন গুলি কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে যে, অসম বিদেশিদের ডাস্টবিন নয়। হিন্দু হোক বা মুসলিম কোনো শরনার্থীকেই অসমে বাস করতে দেওয়া হবেনা। গোটা উত্তরপূর্ব ভারত জুড়ে ডাকা বন্ধ কর্মসূচি আগামীকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে আরও জোরদার হতে চলেছে। উত্তরপূর্ব ভারতের প্রায় অধিকাংশ সংগঠনই এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছে।

আজ লোকসভায় পেশ হলো নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ২০১৯। বিলটি পেশ হওয়ার সাথেই উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলি অশান্ত হয়ে উঠলো। অসম সহ উত্তর পূর্বের একাধিক রাজ্যে সোমবার সকাল থেকেই এই বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন হতে থাকে।

এর মধ্যেই নর্থ ইস্ট স্টুডেন্টস অর্গানাইজেশন (Neso) গোটা উত্তরপূর্ব ভারত জুড়ে দুদিনের বন্ধের ডাক দিয়েছে। তাদের দাবি, এই বিলটি অসম চুক্তির অবমাননা। শুধুমাত্র অসমই নয়, ত্রিপুরা, মনিপুর, মিজোরাম সব জায়গাতেই চলছে বিক্ষোভ কর্মসূচি। আজ সকালে বিক্ষোভকারীরা গুয়াহাটি সহ একাধিক জায়গায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, অসমের উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার কুশপুত্তলিকা দাহ করে।

ছাত্র সংগঠন গুলি কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে যে, অসম বিদেশিদের ডাস্টবিন নয়। হিন্দু হোক বা মুসলিম কোনো শরনার্থীকেই অসমে বাস করতে দেওয়া হবেনা। গোটা উত্তরপূর্ব ভারত জুড়ে ডাকা বন্ধ কর্মসূচি আগামীকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে আরও জোরদার হতে চলেছে। উত্তরপূর্ব ভারতের প্রায় অধিকাংশ সংগঠনই এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছে।

Latest