জীবনযাপন

বিয়ে করবেন ভাবছেন? তাহলে আগেই জেনেনিন এই বিশেষ তথ্যগুলো, নাহলে মুশকিল

আমাদের দেশে আইনত ভাবে বিয়ে 21 বছরে ধরা হয়। কিন্তু সত্যিই কি বিয়ের জন্য এটা সঠিক সময়? একটি বিয়েতে বয়সটা কিন্তু সবার প্রথম বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। নারী হোক কিংবা পুরুষ 25 বছরের পর থেকে একজন মানুষ ম্যাচুওর হয়। এবং প্রত্যেকে তার পরেই বিয়ে করা উচিত।

তবে চলুন জেনে নেই কোন কোন বিষয় গুলো আমাদের দেখা উচিত একটি বিয়ের জন্য: –

১) পুরোপুরি ম্যাচিওর হয়ে বিয়ে করা উচিত: – একটি ছেলে বা মেয়ে 18 বছরের পূর্ণ বয়স্ক হলেও 25 বছরের পর একজন মানুষ আরেকজন মানুষের দায়িত্ব নেওয়ার ক্ষমতায় আসে এবং এটাতে দুজন মানুষই ম্যাচিউর হয়। এটি শুধুমাত্র শারীরিক দিক থেকে নয় মানসিক দিক থেকেও।

২) আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে বিয়ে করা: – দুজন মানুষের বেঁচে থাকার জন্য আর্থিক দিক থেকে স্বাবলম্বী হওয়া খুব বেশি ভাবে জরুরি। কিন্তু আমাদের ভারতবর্ষে এই সুযোগটি শুধুমাত্র পুরুষদের ই দেখা হয়। কিন্তু একজন নারীর ও ভবিষ্যতের কথা ভেবে আর্থিক দিক থেকে স্বাবলম্বী হওয়া খুব বেশি ভাবে জরুরি।

৩) নিজেকে গোছাতে শিখে তারপরে বিয়ে করা: – বিয়ে কোন রকম কোনো ছেলে খেলা নয়, যেটি কিনা শুধুমাত্র একবারই হয় এবং এই বিয়ের সাথে সাথে জড়িয়ে থাকে এক বিরাট গুরু দায়িত্ব। এটা তে জড়িয়ে থাকে বাবার বাড়ি, শ্বশুরবাড়ি এবং নিজের সংসার সব মিলিয়ে তিন তিনটে সংসার। তাই সবার প্রথমে নিজেকে একটু গুছিয়ে নেওয়া উচিত।

Related Articles

Back to top button