জীবনযাপন

পুরুষদের যে ৪টি ভুলে ভাটা পড়ে যৌনতার আনন্দে, জেনেনিন বিস্তারিত

দাম্পত্য জীবনে সবাই সুখী হতে চান। তাইতো সে অনুযায়ী চেষ্টারও কোনো কমতি রাখতেন না সবাই। তবে সুখী দাম্পত্য জীবনের অন্যতম চাবিকাঠি সুখী যৌন জীবন। আর সুখী যৌন জীবনের জন্য অবশ্যই দরকার সঠিক যৌন শিক্ষা।

যদিও যৌনতা নিয়ে এখনো অনেকেই খোলাখোলি কথা বলতে লজ্জাবোধ করেন। বিশেষ করে নারীরা। যার ফলে প্রকৃত সুখ থেকে তারা বঞ্চিত হন। অন্যদিকে অধিকাংশ পুরুষর এই ব্যাপারে সঙ্গীর চাইতে নিজের খুশিই বড় করে দেখেন। যার ফলে ভাটা পড়ে যৌনতার আনন্দে।

অন্যদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পুরুষরা করে বসেন এমন কিছু ভুল, যাতে ভাটা পড়ে যৌন জীবনের আনন্দে। চলুন তবে জেন নেয়া যাক সুখী যৌন জীবন পেতে হলে কোন কোন ভুলগুলো একেবারেই করা চলবে না-

>> অনেকেই ভেবে নেন যৌনতা মানে শুধুই যৌন মিলন। কিন্তু মোটেই সত্যি নয় এই ধারণা। ব্যক্তিগত কথোপকথন, একসঙ্গে মজা করা থেকে স্নেহ-চুম্বন সবই ঘনিষ্ঠতা বাড়াতে সহায়তা করে। গবেষকরা বলছেন ৩০ সেকেন্ডের আলিঙ্গনও বৃদ্ধি করে অক্সিটোসিন হরমোনের ক্ষরণ।

>> অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যৌনতার একটি পূর্ববর্তী ধারণা মাথায় গেঁথে থাকে পুরুষদের, নিজেকে সবজান্তা ভাবা মানে যৌন জীবনের দফারফা হওয়া কার্যত নিশ্চিত। যৌনতার সময়ে কথা বলুন সঙ্গীর অনুভূতি সম্পর্কে, জানতে চান তিনি আসলেই উপভোগ করছেন কি না গোটা বিষয়টি। কথোপকথনে জেনে নিন কিসে উত্তেজিত হন সঙ্গী।

>> উত্তেজনার বশে তাড়াহুড়ো করে ফেলা যৌন মিলনের আনন্দে অনেকটাই নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। বিশেষত পুরুষদের দ্রুত সঙ্গমের প্রতি ঝোঁক বেশি দেখা যায়। গবেষণা কিন্তু বলছে ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে নারীরা শুধু সঙ্গমে সন্তুষ্ট হন না। প্রয়োজন হয় কামোদ্দীপক কথোপকথন, স্পর্শ, চুম্বন, লেহনের। স্পর্শকাতর গৌণ যৌন অঙ্গে ঈষৎ মৌখিক সংসর্গ অনেক বেশি কার্যকরী এই ব্যাপারে।

>> পুরুষতান্ত্রিকতায় ভরপুর চলচ্চিত্র আর রগরগে অশ্লীলতা নিয়ে আলোচনার মাঝে বড় হয়ে ওঠা পুরুষরা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নারীর যৌনতাবোধ ও যৌন চাহিদার সন্তুষ্টি নিয়ে মাথা ঘামানোর প্রয়োজন বোধ করেন না। অথচ শৃঙ্গারে পুরুষ ও নারীর মেহন সমান গুরুত্বপূর্ণ। কাজেই যৌন জীবনকে সুখী করতে শুধু নিজের সন্তোষের কথা ভাবলেই বাড়বে সমস্যা।

Related Articles

Back to top button