সহবাসে লুব্রিকেন্ট ব্যবহার কতটা নিরাপদ? জেনেনিন

সহবাসে অধিক আরামের জন্য অনেক দম্পতি ভ্যাজাইনা ও পেনিসে লুব্রিকেন্ট (লুব) ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু সব লুব্রিকেন্টই একই মানের নয়। বাজারেপ্রাপ্ত অনেক লুব্রিকেন্টে কড়া কেমিক্যাল থাকে। যা গোপনাঙ্গের সংবেদনশীল ত্বকের ক্ষতি করতে পারে।

যৌনাঙ্গের ত্বক এতোটাই সংবেদনশীল যে, লুব্রিকেন্ট ব্যবহারের আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া দরকার। বাজারেপ্রাপ্ত কিছু লুব্রিকেন্ট অনাকাঙ্ক্ষিত পরিণতিতে ভোগাতে পারে, তাই অনেক চিকিৎসই প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

নিউ ইয়র্ক মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক আলিসা ডোয়েক বলেন, সহবাসের সময় অস্বস্তিকর ঘর্ষণ ও সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে কেমিক্যালবিহীন লুব্রিকেন্ট মানে প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহারই বেশি নিরাপদ।

চিকিৎসকেরা জানান- বাজারেপ্রাপ্ত কিছু লুব্রিকেন্টে এমনও কেমিক্যাল থাকে, যা অন্তরঙ্গ স্থানের ক্ষতি করতে পারে। যদি বাণিজ্যিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করতে চান, তাহলে লুব্রিকেন্টের প্যাকেটে এসব উপাদান লেখা থাকলে তা এড়িয়ে চলুন- ফ্রাগরানসেস, পারাবিনস, গ্লিসারিন ও প্রপাইলিন গ্লাইকোল। অতিরিক্ত সংবেদনশীল ত্বক, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা ও ছত্রাক সংক্রমণের ঝুঁকি বিবেচনায় এসব উপাদানযুক্ত লুব্রিকেন্ট ব্যবহার না করতে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এসবের পরিবর্তে প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করতে পারেন, যা নিরাপদে সহবাসের সুখ বাড়াতে পারে।

প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন

১ নারকেল তেল
২ অলিভ অয়েল
৩ অ্যালোভেরা জেল

তবে হ্যা, এসব যেন সম্পূর্ন প্রাকৃতিক হয় সে বিষয়টি আগে নিশ্চিত হন। আর সবকিছুর জন্যও ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করে নেয়াই বুদ্ধিদীপ্ত কাজ হবে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress