এখন কান দেখেই বুঝে নিন শরীর সুস্থ আছে কি না, জেনেনিন

কানের বিভিন্ন সমস্যায় ছোট-বড় অনেকেই ভোগেন। কানে ব্যথা, চুলকানি, জল ঢুকে যন্ত্রণা, শোঁ শোঁ শব্দ করা কিংবা সংক্রমণের মতো সমস্যা দেখা যায়। কানের বিভিন্ন সমস্যাও কিন্তু আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কেও অনেক কিছু জানান দেয়।

আসলে শরীরের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সমস্যার লক্ষণও ফুটে ওঠে কানে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কানের কোন সমস্যা কী কী রোগের ইঙ্গিত দেয়-

কানের লতিতে ভাঁজ পড়া

অনেকেরই কানের লতিতে ভাঁজ দেখা যায়। একে ফ্রাঙ্কের চিহ্নও বলা হয়। এটি আসলে হৃদরোগের লক্ষণ। যদিও বিজ্ঞানীরা জানেন না যে, ঠিক কী কারণে কানের লতিতে ভাঁজের সৃষ্টি হয়। তবে এই ভাঁজ থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

কানে শব্দ হওয়া (টিনিটাস)

ঠান্ডা লাগলে কিংবা কানে ওয়াক্স বেড়ে গেলে শোঁ শোঁ শব্দ হতে পারে। তবে এই শব্দ হওয়ার কারণ জয়েন্ট সম্পর্কিতও হতে পারে। যদি শোঁ শোঁ, গর্জন বা হিস হিস শব্দ শুনতে পান তাহলে দ্রুত ডাক্তার দেখান।

কান চুলকায়

ছত্রাক সংক্রমণ বা অন্যান্য কারণে কানের জ্বালাপোড়া বা চুলকানিভাব হতে পারে। এর আরেকটি সম্ভাব্য কারণ হলো সোরিয়াসিস। ইমিউন সিস্টেমে সমস্যা হলে এই রোগ বেড়ে যায়।

আপনার কানেও যদি সোরিয়াসিস দেখা দেয় তাহলে তা যন্ত্রণাদায়ক হতে পারে। কারণ কানের ত্বক অনেক পাতলা ও সংবেদনশীল।

কানের বাইরে ও ভেতরে সোরিয়াসিস হলে মরা চামড়া তৈরি হতে পারে। যা জমাট বেঁধে শ্রবণশক্তিও কমতে পারে। সোরিয়াসিসের কোনো প্রতিকার নেই।

তবে নিয়ম মেনে চললে তা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। তবে অবশ্যই এমন সমস্যা দেখলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

কানে ব্যথা

বিভিন্ন কারণে কানে ব্যথা হতে পারে। বিশেষ করে কানের সংক্রমণ, গলার সংক্রমণ, কানের মোম বা তরল জমা, দাঁত ব্যথার কারণেও কানে ব্যথা হতে পারে।

তবে যদি এই ব্যথা একদিনের মধ্যে ভালো না হয় কিংবা জ্বর, বমি, গলা ব্যথা, কান থেকে তরল বের হওয়া বা এর চারপাশে ফুলে যাওয়ার মতো লক্ষণ দেখেন তাহলে দ্রুত ডাক্তারকে দেখাতে হবে। শিশুদের ক্ষেত্রে এ সমস্যা বেশি দেখা দিতে পারে। তাই সতর্ক থাকুন।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress