জীবনযাপন

টি ব্যাগের কিছু অসাধারণ ব্যবহার সম্পর্কে, জেনেনিন বিস্তারিত

অনেকেরই আজকের সকালটা শুরু হয়েছে এক কাপ গরম চা দিয়ে। এরপর সারাদিনে চলবে আরও কয়েক কাপ! ব্যস্ত দিনের মাঝে এক কাপ চা যেন ক্লান্তি মেটায় সারা শরীরের।
সময় বাঁচাতে আজকাল আমরা অনেকেই টি-ব্যাগ দিয়ে চা বানাই। চা বানানোর পর এই জিনিসটা কিন্তু ফেলনা নয়। চা খাওয়া ছাড়া আরও অনেক কাজেই লাগতে পারে টি-ব্যাগ। জেনে নিন কী কাজে লাগে ঘরোয়া উপকরণটি।

পোকামাকড় তাড়ায়

পোকামাকড়ের যন্ত্রণায় অনেকেই কাতর। গরম জলে পেপারমিন্ট টি ব্যাগ ভিজিয়ে নিন। এবার ওই জলে দু’ফোঁটা বাসন মাজার লিকুইড সাবান যোগ করুন। ভালোভাবে মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে ঘরের কোনায় কোনায় স্প্রে করে দিন। ইঁদুরসহ সব পোকামাকড়ের উৎপাত কমে যাবে।

কাঠের আসবাবপত্রের যত্নে

টি ব্যাগযুক্ত জল ব্যবহার করে খুব সহজেই কাঠের আসবাবপত্রের যত্নের ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া ডেকোরেশনের জন্যে ব্যবহৃত ফ্লোর খুব সহজেই চকচকে করে তোলা যাবে।

ফ্রিজের বাজে গন্ধ দূর করতে

ফ্রিজে বাজে গন্ধ হলে ব্যবহৃত টি-ব্যাগ রেখে দিন। দুর্গন্ধ দূর করতে টি-ব্যাগ খুব ভালো কাজ দেয়। নানা ধরনের দুর্গন্ধ শোষণ করতে পারে এটি। আর ফ্রিজের অনাকাঙ্ক্ষিত আর্দ্রতা দূর করতে ব্যবহার করুন একটি শুকনো টি-ব্যাগ।

রুম ফ্রেশনার হিসেবে:

টি ব্যাগ থাকলে রুম ফ্রেশনারের প্রয়োজন নেই! ব্যবহার করা টি ব্যাগ শুকনো করে নিন, তাতে ছিটিয়ে দিন কয়েক ফোঁটা পছন্দের এসেনশিয়াল অয়েল। এবার ব্যাগগুলো বাথরুমে বা ড্রয়ারের ভেতরে রেখে দিন।

ছত্রাক থেকে গাছ বাঁচাতে

পছন্দের গাছে ফাঙ্গাস ধরলে টি ব্যাগের সাহায্য নিতে পারেন। জলে টি ব্যাগ দিয়ে ফুটিয়ে নিন। তারপর সেই জলটা স্প্রে বোতলে ভরে মাটিতে আর পাতায় স্প্রে করুন সকাল-বিকেল। ছত্রাক কমে যাবে।

প্রাকৃতিক সার

গাছের পুষ্টি জোগান দিতেও ব্যবহার করা যেতে পারে এই টি-ব্যাগ। টি ব্যাগ থেকে চা পাতা খুলে ফেলে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিন। চায়ের ট্যানিক অ্যাসিড এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক পলিফেনল গাছের দ্রুত বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

Related Articles

Back to top button