সাবধান! চা খাওয়ায় সময় ভুল করেও এই কাজটি করবেন না! মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে

More articles

কাজের ফাঁকে বা আড্ডায় এনার্জি ড্রিঙ্ক হিসেবে চা বা কফির কোনো বিকল্প নেই। বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পাত্রে আমরা চা-কফি পান করতে অভ্যস্ত। কোথাও চিনামাটির কাপ, কোথায় মাটির ভাঁড়, আবার কোথাও প্লাস্টিকের কাপে আমরা চা-কফি পান করে থাকি। এক্ষেত্রে চিকিৎসকদের মতামত অনুযায়ী প্লাস্টিকের কাপে চা বা কফি পানে হতে পারে মারাত্মক বিপদ। তবে শুধু চা বা কফি খাওয়াই নয়, প্লাস্টিকের বোতল জল খাওয়া ও শিশুদের প্লাস্টিকের বোতোলে দুধ খাওয়া স্বাস্থ্যপোকারী নয়। এছাড়া বর্তমান সময় প্লাস্টিকের মোড়কে এমন কিছু খাওয়ার বিক্রি হচ্ছে যা ডেকে আনছে বিভিন্ন রোগ।

প্লাস্টিকের মধ্যে থাকা বিসফেনল-এ নামের টক্সিক এর সাথে গরম খাবার বা পানীয় সংস্পর্শে এলে ওই রাসায়নিক খাবারের সঙ্গে মিশে শরীরে প্রবেশ করলে তা মহিলাদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের কাজের স্বাভাবিকতা বিঘ্ন ঘটায় এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে শুক্রাণু কমে যায়। গবেষণায় জানা গিয়েছে, প্লাস্টিকের কাপ বানাতে সাধারণত যে সব উপাদান ব্যবহার করা হয় তাতে হার্ট, কিডনি, লিভার, ফুসফুস এবং ত্বকও মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে, এমনকী স্তন ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কাও থাকে। যার ফলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

এছাড়া হরমোনের ভারসাম্যতা হারানো, মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমে যাওয়া ইত্যাদি একাধিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এই সকল রোগে আক্রান্তের পরিমাণ আমেরিকার পরে ভারতে বেশি। তাই চিকিৎসকেরা প্লাস্টিকের তৈরি এইসকল দ্রব্য ও প্লাস্টিকে মোড়া খাবার খাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। তাই দীর্ঘদিন সুস্থ ও নীরোগ জীবন পেতে এখনই প্লাস্টিকের তৈরি দ্রব্য বর্জন করুন।

Latest