#Breaking! মমতাকে টেক্কা দিতে দিলীপ ঘোষের নয়া চাল! পুরোটি জানলে চমকে ওঠবেন

More articles

রাজ‍্য জুড়ে জনসংযোগ বাড়ানোর লক্ষ্যে রাজ‍্যের মুখ‍্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত মাসে দিদিকে বলো কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন‌।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি অভিযোগ জানানোর জন্য একটি ফোন নম্বর দেওয়া হয়েছে।তৃণমূল নেত্রী দলের সব বিধায়ক,সাংসদ,নেতা, নেত্রীদের গ্রামে গ্রামে গিয়ে এই কর্মসূচি পালন করার নির্দেশ দিয়েছেন।সেই নির্দেশ অনুযায়ী দলের নেতারা বিভিন্ন জায়গায় দলীয় কর্মীর বাড়িতে গিয়ে খাওয়া দাওয়া এবং রাত্রিবাস করছেন।এবার রাজ‍্য বিজেপির পক্ষ থেকে আগামী ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য করে তৃণমূলকে টক্কর দিয়ে দিদিকে বলোর পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।সেই কর্মসূচিতে রাজ‍্যের বিভিন্ন রাজনৈতিক ব‍্যক্তিরা নানা এলাকায় গিয়ে চায়ের আড্ডার সঙ্গে সেই এলাকার মানুষদের সাথে কথা বলবেন।

বিজেপির রাজ‍্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বৃহস্পতিবার একটি ভিডিও প্রকাশ করে এই নতুন কর্মসূচির কথা জানান। তিনিও মমতা ব্যানার্জির মতো চায়ের আড্ডায় যোগ দিতে চান। দিলীপের কথায়, রাজ‍্যের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে সেখানকার মানুষের সঙ্গে চায়ের আড্ডার সাথে সাথে অভাব অভিযোগ শুনবেন।সম্প্রতি তৃণমূল নেত্রী দীঘায় গিয়ে বিভিন্ন গ্রামের মানুষদের কাছে থেকে অভাব অভিযোগ শোনেন।দীঘার কাছে একটি দোকানে নিজের হাতে চা তৈরী করে সকলকে খাওয়ান।এই ধরনের জনসংযোগ কর্মসূচি লোকসভা নির্বাচনে খারাপ ফল হবার পর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুরু করেছেন।বিজেপির পক্ষ থেকে বিধানসভায় দিলীপ ঘোষকেই মুখ করে নির্বাচনে লড়াই করতে চলেছে।দিলীপ ঘোষের কথায়, তৃণমূলের এই কর্মসূচি অন্ত:সারশূন‍্য।বিজেপির ভিডিওতে দাবি করা হয়েছে, রাজ‍্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক ব‍্যক্তিরা চায়ের আড্ডায় মিলিত হবেন।সেখানে তার মুখোমুখি হয়ে বিভিন্ন বিষয়ে সাধারণ মানুষ কথা বলতে পারবেন।কবে তার সঙ্গে কথা বলা যাবে, সেই ব‍্যাপারে স্থানীয় বিজেপির অফিসে গিয়ে খোঁজ করতে হবে। সবশেষে, মমতা ব্যানার্জি ও দিলীপ ঘোষ জড়িয়ে তো পড়লো এই চা চক্রে। কিন্তু শেষপর্যন্ত কার জিত হয়, সেটাই দেখার।

Latest