ওজন কমাতে চান? তাহলে প্রতিদিন পাতে রাখুন এই ৩টি প্রকার ডাল

স্বাস্থ্য সচেতনা দেখা যায় এখন বেশিরভাগ মানুষের মধ্যেই। সে কথা মাথায় রেখেই প্রথমে ওজন কমাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন সবাই। তবে সহজে শরীরের বাড়তি ওজন কমানো সম্ভব নয়। এজন্য প্রয়োজন কঠোর ডায়েট এবং শারীরিক কসরত।
শরীরের অত্যধিক ওজন একদিকে যেমন শারীরিক সৌন্দর্য্য নষ্ট করে, তেমন অন্যদিকে শরীরে বিভিন্ন রোগের কারণও। তাই শরীরের বাড়তি ওজন কমানোর জন্য অনেকেই অনেক কিছু করছেন। ডায়েট, জিম, যোগা সেন্টার, কিছুই বাদ পড়ছে না। তবে খ্যাদ্যাভ্যাস এক্ষেত্রে বড় পরিবর্তন আনতে পারেন।

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় বিভিন্ন ধরনের ডাল রাখতে পারেন। এতে ওজন কমার পাশাপাশি আপনাকে প্রয়োজনীয় পুষ্টিও সরবরাহ করবে।জেনে নিন কোন ধরনের ডাল খেতে পারেন-

মুগ ডাল
মুগ ডাল ওজন কমাতে সেরা উপায়। সাধারণত বাজারে দুই প্রকারের মুগ ডাল পাওয়া যায়, একটি খোসা ছাড়া হলুদ রঙের আর একটি খোসাসহ সবুজ রঙের। এই ডাল খাওয়ার সবচেয়ে সুবিধা হল, এটি ওজন কমাতে সাহায্য করে। মুগ ডাল ফাইবার এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ। যা আমাদের দীর্ঘ সময়ের জন্য তৃপ্ত রাখে। এছাড়াও এই ডাল খুব সহজেই হজম হয়ে যায়।

মসুর ডাল
মসুর ডাল সঠিক পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট এবং লো-ফ্যাট যুক্ত। এই ডালে ফাইবার বেশি থাকে। এটি হজম ক্ষমতা বৃদ্ধিতে ও ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করে। মসুর ডালে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় প্রোটিন, ভিটামিন, অ্যামিনো অ্যাসিড, ফাইবার, পটাশিয়াম, আয়রন, প্রভৃতি প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়। ১০০ গ্রাম মসুর ডালে ৩৫২ ক্যালোরি এবং ২৪.৬৩ গ্রাম প্রোটিন রয়েছে। যা প্রোটিনের দৈনিক মানের ৪৪ শতাংশ।

কুলথি ডাল
ইংরেজিতে এটি হর্স গ্রাম নামেও পরিচিত। কুলথি ডাল ওজন কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি আমাদের দেহের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে। কুলথি ডাল প্রোটিনের সেরা উৎস। যা আপনি আপনার ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন। এই ডালে ভিটামিন, ফাইবার, মিনারেলস রয়েছে এবং এতে ক্যালোরিও কম থাকে, যা ওজন হ্রাসে খুবই সহায়ক।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress