VIRAL : ঘরের দরজা-জানলা সব বন্ধ, স্বল্পবসনা মহিলার সঙ্গে অশ্লীল নাচে মত্ত পুলিশ আধিকারিক, দেখুন ভিডিও!

0
4

টোটকা24×7 নিউজ ডেস্ক, দেবপ্রিয়া সরকার : ঘরের দরজা-জানলা সব বন্ধ করে স্বল্পবসনা মহিলার সঙ্গে অশ্লীল নাচে মত্ত পুলিশ আধিকারিক। এমন দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হতেই সাসপেন্ড করা হল ওই পুলিশ আধিকারিককে। ঘরের ভিতরে টেপ রেকর্ডারে চলছে মাধুরি দীক্ষিতের জনপ্রিয় গান ‘চোলি কে পিছে কিয়া হ্যায়’ আর সেই গানের সাথে অশ্লীল নাচে উন্মত্ত লাল রঙের বিকিনি পরিহিতা এক মহিলা ও পুলিশ আধিকারিক।

পুলিশ আধিকারিক হল কুলটি থানার নন্দকিশোর সিং। অনুমান করা হয়েছে ঘটনাটি সীতারামপুরের বাইজিপল্লি এলাকার।সেখানেই কোনও যৌনকর্মীর ঘরে হাজির ছিলেন ওই ওসি তবে তিনি একা নন, ভিডিওতে আরও একজন ব্যক্তিকে দেখা গিয়েছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে মহিলাকে ওড়না পরিয়ে দিতে সাহায্য করছেন সেই ব্যক্তি। দেখা যায় উন্মত্ত নাচের ফাঁকে অশ্লীলভাবে ওসির যৌনাঙ্গেও একবার হাত দিলেন সেই মহিলা। আনন্দে আত্মহারা নন্দকিশোরও। মহিলার সাথে নাচে মেতে কোমর দোলাচ্ছেন। সবমিলিয়ে জলসা ভালই জমে উঠেছিল।

কিন্তু ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই তোলপাড় ধানবাদ ও আসানসোল, সমস্যায় পড়তে হল নন্দকিশোরকে। খবর গিয়ে ধানবাদের এসপি কিশোর কৌশলের কানে পৌঁছাতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর করেন তিনি এবং এমন ঘটনার জন্য সাসপেন্ড করা হয় নন্দকিশোরকে। ১৬ আগস্ট ২০১৮ সালে এই ঘটনাটি ঘটেছিল।নন্দকিশোরের স্বীকারোক্তির পর জানা গেছে সেই সময় জলসায় থাকা অপর ব্যক্তিটি ছিল অন্য এক পুলিশ কর্মী যিনি সম্প্রতি পদোন্নতি হয়ে মহুদা থানায় এসেছেন। এছাড়া বলেন তাঁরই কোনও বন্ধু হিংসার জেরে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দিয়েছেন আর সেই কারণেই সাসপেন্ড করা হয়েছে তাঁকে।