এখন আর ওষুধ নয় হাঁপানি থেকে মুক্তি পান ঘরোয়া উপায়ে, জেনেনিন পদ্ধতি

ফুসফুসে বাতাসের প্রবাহে বাধা পড়লেই হাঁপানি শুরু হয়। সাধারণত এটি অ্যালার্জি, বায়ু দূষণ, শ্বাস প্রশ্বাসের সংক্রমণ, আবহাওয়া পরিস্থিতি, খাদ্য এবং নির্দিষ্ট ওষুধের কারণে হয়ে থাকে।

চিকিৎসা বিজ্ঞানে হাঁপানির অনেক চিকিৎসা রয়েছে। তবে প্রাকৃতিক উপায়ে খুব সহজেই ঘরে বসে তাৎক্ষণিক প্রশান্তি পেতে পারেন। জেনে নিন সহজ উপায়গুলো-

১. সরিষার তেল

সরিষার তেলের সঙ্গে সামান্য কর্পূর মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটি বুকে ভালোভাবে ম্যসাজ করুন। এতে আপনি তাৎক্ষণিক হাঁপানি থেকে মুক্তি পাবেন। চাইলে তেল হালকা গরম করে নিতে পারেন।

২. ডুমুর

হাঁপানি রোগীদের জন্য মহৌষধ হিসেবে পরিচিত ডুমুর। শুকিয়ে নেয়া ডুমুর সারা রাত জলে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে খালি পেটে এই জল পান করুন নিয়মিত।

৩. আদা

আদার ওষুধি গুণের সঙ্গে কমবেশি সবাই পরিচিত। তবে হাঁপানি সারাতে এটি জাদুর মতো কাজ করে। দিনে ২ থেকে ৩ বার আদা, মধু এবং ডালিম একসঙ্গে খেতে পারেন।

৪. কফি

ক্যাফেইন এর মধ্যে কফি হাঁপানি রোগীদের জন্য খুবই উপকারী। এটি নাক পরিষ্কার রেখে সহজে নিশ্বাস নিতে সাহায্য করে। যদি আপনি কফি পছন্দ না করে থাকেন। সেক্ষেত্রে চা খেতে পারেন। তবে দিনে ৩ কাপের বেশি খাওয়া যাবে না।

৫. পেটের শ্বাস কৌশল

এই কৌশলটি আপনার ফুসফুসে বাতাস চলাচল ঠিক রাখবে। আপনি শুয়ে বা বসে যেভাবেই থাকুন খেয়াল রাখুন ঠিক মতো শ্বাস নিতে পারছেন কিনা! নাক দিয়ে আস্তে আস্তে শ্বাস নিন। আপনি যখন শ্বাস ফেলেন তখন আপনার পেটটি আপনার বুকের বিপরীতে বাইরে বের করে দিন। আপনার পেটের ভিতরের দিকে ঠুকিয়ে দিয়ে ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়ুন। সাধারণত শ্বাসকষ্ট হলে শ্বাস প্রশ্বাসের দ্বিগুণ বেশি হয়ে থাকে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress