রোগ প্রতিরোধে শিশুকে রোজ সকালে যা খাওয়াবেন! জেনেনিন বিস্তারিত ভাবে

মহামারি পরিস্থিতিতে শিশুর রোগ প্রতিরোধের জন্য বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন খাবারের কথা বলছেন। এর মধ্যে নিয়মিত ফলমূল ও শাক-সবজি খাওয়ালে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়।

শিশুকে রোগব্যাধি থেকে সুরক্ষিত রাখতে যে খাবার খাওয়ানো যায় সে সম্পর্কে আপনাকে জানাবো। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

দই

মিষ্টি দই বলুন, আর টক দই বলুন- সব দইয়েই কিছু উপকারী ব্যাকটেরিয়া রয়েছে। যেগুলো শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। চলমান করোনা মহামারিতে নিয়মিত দই খাওয়ালে শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেন, দই সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা করে। তবে অনেক শিশু টক দই খেতে চায় না। সেক্ষেত্রে দইয়ের সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

ডিম

ভিটামিন, মিনারেল ও প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার ডিম। শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য এটি সহায়ক। সকালের নাশতা, দুপুরের খাবার কিংবা বিকেলের নাশতায় শিশুকে ডিম খেতে দিতে পারেন। বিশেষ করে ডিমের কুসুমে প্রচুর ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। এতে জিংক, সেলেনিয়াম, ভিটামিন-ডি ও ভিটামিন-ই রয়েছে।

বাদাম

শিশুর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা তৈরি করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বিভিন্ন ধরনের বাদাম। আখরোট ও কাঠবাদামে রয়েছে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। বাদাম ‍ফুসফুসের রোগ ও হৃদরোগ থেকে শিশুকে সুরক্ষিত রাখে।

ফলমূল ও শাকসবজি

শিশুর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য ফলমূল ও শাকসবজির বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞরা বলেন, শিশুকে সকাল ও বিকেলের নাশতায় ফলমূল এবং দুপুরের খাবারে শাকসবজি খেতে উৎসাহিত করতে হবে। কারণ নিয়মিত ফলমূল ও শাকসবজিতে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress