এই সময়ে সাইনাসের সমস্যায় নাজেহাল? জেনেনিন এই সমস্যার সমাধানে যা করণীয়

কখনও প্রচণ্ড গরম, কখনও আবার ঝমঝম করে বৃষ্টি- ঋতু পরিবর্তনের এই সময়ে অনেককেই সাইনাসের সমস্যায় ভূগতে হয়। সাইনাসের সমস্যা হলে প্রবল মাথা যন্ত্রণা, সারা ক্ষণ নাক-মাথায় ভারী ভাব, এমনকি ব্যথার কারণে জ্বরও চলে আসে। সামান্য নিয়মের এ দিক ও দিক হলেই এই সমস্যা মাথাচাড়া দেয়।

সাইনাস মাথার এমন একটি অংশ, যার কাজ নাকের ভিতর দিয়ে বাতাস চলাচলে সাহায্য করা। কোনও কারণে এই সাইনাসের ভিতরে সংক্রমণ হলে বাতাস চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। তখন তীব্র মাথাব্যথা হয়। শ্বাসকষ্টও হতে পারে কোনও কোনও ক্ষেত্রে।

যারা সারাবছরই এ ধরনের সমস্যায় ভোগেন তারা ঘরোয়া কিছু সমাধান বেছে নিতে পারেন। যেমন-

১. সাইনাসের সমস্যার সহজ সমাধান হলো অতিরিক্ত পরিমাণে জল খাওয়া। বেশি করে জল খেলে সাইনাসের মধ্যে জমা ময়লা স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। তাতে নাক পরিষ্কার হয়। ব্যথা কমে। বেশি করে তরল খাবার খেলেও এই সমস্যা কমে।

২. সাইনাসের সমস্যা থেকে রেহাই পেতে একটি বিশেষ পানীয় বানিয়ে নিতে পারেন। এক চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার, অল্প আদা কুচি, লেবু, অল্প গোলমরিচ, হাফ চামচ হলুদ, তিন-চার কোয়া রসুনের মিশ্রণ এক কাপ জলের সঙ্গে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। পানীয়টি ঠান্ডা করে চায়ের মতো চুমুক দিয়ে খান। নিয়মিত এই পানীয় খেলেও সাইনাসের ব্যথা কমবে। প্রয়োজনে এতে মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন। তাতে এই পানীয়টি আরও ভালো ভাবে কাজ করবে।

৩. সর্দি-কাশির সমস্যা কমাতে অনেকেই ভাপ নেন। গরম জল পাত্রে রেখে, তোয়ালে দিয়ে মাথা চাপা দিয়ে সেই পাত্র থেকে ভাপ নেন। এই গরম জলে কয়েক ফোঁটা ইউক্যালিপটাসের এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিতে পারেন। তাতেও সাইনাসের ব্যথা কমবে।

৪. ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক দুই ফোঁটা ইউক্যালিপটাস তেল আঙুলে নিয়ে নাকের গোড়ায় লাগিয়ে নিন। এতে আরাম পাবেন। ঘুমানোর সময় এসি চালানোর অভ্যাস থাকলে তা ত্যাগ করুন। প্রয়োজনে ঘুমের ঘণ্টাখানেক বা ঘণ্টাদেড়েক আগে এসি চালিয়ে নিয়ে ঘর ঠান্ডা করে তার পর ফ্যান চালিয়ে ঘুমাতে যান।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress