সমাজসেবক মুলক কাজে এগিয়ে এলেন সঞ্জয় দত্ত! জেনে নিন কোন কাজের কথা বলছি!

0
1

টোটকা24×7 ডেস্ক: একসময়ে মারন নেশা ড্রাগে আসক্ত হয়ে পড়েছিলেন তিনি, আর সেই নেশাতেই প্রায় অর্ধ উন্মত্তও হয়ে গিয়েছিলেন। এই কাহিনী যে কতটা সত্যি তা প্রমানিত হয়েছে তাঁর বায়োপিকে। নিশ্চয় বুঝতে পারছেন কার কথা বলা হচ্ছে। হ্যাঁ সঞ্জয় দত্ত।
যাঁর বায়োপিকে রনবীরকে বলতে শোনা গিয়েছিল তিনটি কারণে আমি ড্রাগ নিতাম, একটি বাবার ওপর রাগ করে, অন্যটি মায়ের শারীরিক অসুস্থতার জন্য আর তৃতীয়টি নেহাতই নেশার জন্য। সেই ড্রাগে আসক্ত মানুষটি এবার ড্রাগ বিরোধী প্রচারাভিযানের প্রধান মুখ হলেন।

যে মুন্নাভাই ড্রাগের নেশায় বুঁদ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তাঁকে কেন্দ্র করেই সচেতনতা প্রোগাম এগোবে, ইউনিয়ন সোশ্যাল জাস্টিস অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট মন্ত্রকের তরফ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের ড্রাগ বিরোধী কার্যকলাপের বিরোধিতার জন্য জাতীয় অ্যাকশন পরিকল্পনা ২০১৮ থেকে ২০২৫ সাল অবধি চলা অনুষ্ঠানে সচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি কাউন্সেলিং, রিহ্যাবিলিটেশন-এর দিকে নজর দেওয়া হবে। আগামী ২৬ শে জুন বিশ্ব মাদক দিবসে প্রথম সঞ্জয় দত্তের ভূমিক প্রকাশিত হবে।