সপ্তাহে অন্তত কত বার মিলন করলে পালাবে রোগ-ব্যাধি? জেনেনিন বিশেষজ্ঞদের মতামত

যৌনতার ব্যাখ্যা একেকজনের কাছে একেক রকম। কারো কাছে যৌনতা মানে ভালোবাসার প্রকাশ, আবার কারো কাছে আনন্দের উদযাপন। মূলত যৌনতা মানসিক ও শারীরিক সুখের একটা বড় অংশ। কিন্তু জেনে অবাক হবেন যে, এসব ছাড়াই যৌনতা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে মোক্ষম হাতিয়ার হতে পারে। অন্তত এমনটাই মত গবেষকদের।

পেনসিলভেনিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানাচ্ছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে করা একটি সমীক্ষায় স্পষ্ট ইঙ্গিত মিলেছে যে, সক্রিয় যৌন জীবনের অধিকারী পড়ুয়াদের মধ্যে জীবাণু ও ভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষমতা তৈরি হয়েছে বেশি। এমনকি, তাদের দেহে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডির পরিমাণও বেশি।

ক্যালিফোর্নিয়া-সান ফ্রানসিসকো বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণাও দিচ্ছে একই ইঙ্গিত। এখানকার গবেষকদের মতে যারা সপ্তাহে অন্তত দু’ থেকে তিন বার যৌন মিলনে লিপ্ত হয়েছেন তারা অনেক বেশি সুস্থ থেকেছেন অন্যদের তুলনায়। গবেষণা বলছে, নিয়মিত যৌনতায় প্রায় ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি পায় আইজিএ নামক অ্যান্টিবডি। ফলে সর্দি-কাশির সমস্যা কমে অনেকটাই।

শুধু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিই নয়, হ্রদযন্ত্র ভালো রাখতেও সহায়তা করে নিয়মিত যৌনতা। স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সপ্তাহে অন্তত তিন থেকে পাঁচ বার শরীরচর্চা করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা। নিয়মিত শরীরচর্চার সময় না পেলে যৌনতাই হয়ে উঠতে পারে শরীরচর্চার বিকল্প, মত বিশেষজ্ঞদের। আমেরিকার বিখ্যাত একটি বিজ্ঞান পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য অনুসারে পঞ্চাশোর্ধ মানুষদের দেহে রক্ত সঞ্চালন ভালো রাখতে যৌনতা হয়ে উঠতে পারে মুশকিল আসান। নারীদের রক্তচাপের সমস্যা কমাতেও অনেকটাই সহায়তা করে নিয়মিত যৌনতা।

বিশেষত প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি অনেকটাই কমিয়ে দেয় নিয়মিত যৌনতা। গবেষকদের মতে, যে পুরুষরা মাসে অন্তত ২১ বার বীর্য ত্যাগ করেন তাদের মধ্যে প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে প্রায় এক তৃতীয়াংশ। তবে মনে রাখা ভালো, প্রত্যেকের শারীরিক গঠনতন্ত্র আলাদা তাই নিজের শরীরকে বুঝতে হবে নিজেকেই। পাশাপাশি যৌন জীবনকে স্বাস্থ্যকর করতে সচেতন হতে হবে বিভিন্ন যৌনরোগ থেকেও।rs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress