রেগে যান অল্পতেই? তাহলে মেনেচলুন এই টিপস গুলো

সকালে ঘুম থেকে উঠেই মেজাজ খারাপ। কেউ কিছু বললেই মাথা হচ্ছে গরম, দুমদাম তাই শুনিয়ে দিচ্ছেন। ফলে দিনটা শুরুই হচ্ছে তিক্ত অভিজ্ঞতায়। তবে এই পরিস্থিতি যদি সারাদিন চলে, একদিনের বেশি চলে বা ঘন ঘন এরকমই মেজাজের অবস্থা হয় তাহলে কিন্তু ভাবার বিষয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেকেই এধরনের আচরণকে খুব একটা পাত্তা দেন না। ভাবেন এই তো ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু এধরনের আচরণ যদি বেশিদিন চলে তাহলে কিন্তু বড়সড় রোগ হতে পারে। তাই একটু সচেতন হলেই এই পরিস্থিতি থেকে নিজেকে দূরে রাখা যায়। তার জন্য নিয়মিত অনুশীলন দরকার (Anger management)।

১) সব সময় রেগে থাকার নেপথ্যে থাকতে পারে গভীর মানসিক অবসাদ। তাই একেবারেই অবেহলা করবেন না। বরং অবসাদকে কীভাবে কাটানো যায় তার উপায় বার করুন। দুম করে রেগে যাওয়ার আগে একটু ধৈর্য ধরে পরিস্থিতির কথা ভাবুন। চেষ্টা করুন মাথা ঠান্ডা রাখতে।
২) রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমনোর চেষ্টা করুন। রাতে শুয়ে শুয়ে মোবাইল ফোন দেখবেন না। বরং শোয়ার আগে চোখ বুজে মেডিটেশন করুন।

৩) কোনও বিশেষ কারণে মাথা গরম হলে যতটা পারবেন ভুলে থাকার চেষ্টা করুন। মনে করবেন আপনার হাতে সব কিছু নেই। তাই অতিরিক্ত ভেবে রাগ করার কোনও মানেই নেই।

৪) কোনও পরিস্থিতি বা পরিবেশ আপনার একেবারেই ভাল লাগছে না। এড়িয়ে চলুন সেই পরিবেশ। বরং চেষ্টা করুন কিছুটা সময় নিজেকে দেওয়ার।

৫) দিন শেষে ডায়েরি লেখার প্র্যাকটিস করুন। দিনের যাবতীয় ঘটনাকে কাগজে লিখে ফেলুন। দেখবেন এতে রাগও কমবে। পজিটিভিটি অনুভব করবেন।

৬) সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে। মুক্ত হাওয়ায় এক্সারসাইজ করুন। দেখবেন গোটা দিনটা ভাল থাকবেন।

৭) অতিমাত্রায় মানসিক অবসাদ হলে, অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

rs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress