লটারির পুরস্কার নিতে এলেন মুখোশ পড়ে -পিছনের ইতিহাস শুনুন

More articles

টোটকা24×7 নিউজ ডেস্ক: মুখোশ পড়ে লটারির পুরস্কার নিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু কেন ? ঘটনাটি ঘটল ই বা কোথায়? ঐ ব্যক্তি এমন অভিনব পদক্ষেপ নিয়েছেন কেন? তিনি লটারি বিজয়ী তার স্বজনদের কাছ থেকে তার পরিচয় গোপন করার জন্যই তিনি একটি সাদা কেপ, কালো গ্লাভস এবং খক্লাসিক স্ল্যাশ ফ্র্যাঞ্চাইজির মুখোশের স্ক্রামের মাধ্যমে তার ১.৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পুরস্কার নিয়েছেন।

সুপার লোটো বিজয়ী, যিনি শুধুমাত্র এ. ক্যাম্পবেল হিসাবে চিহ্নিত হন, গত সপ্তাহে কিংস্টনের স্প্যানিশ কোর্ট হোটেলে স্মরণীয় চেহারা দেখিয়েছিলেন, তার পুরস্কার সংগ্রহের জন্য ১৫৮ মিলিয়ন ডলারের বেশি জ্যামাইকান ডলারের মূল্য ছিল।গতবছর নভেম্বরে তিনি এই লটারি জিতেছিলেন।তিনি চান না তার স্বজনরা সেটা জানুক।

কারণ লোভী স্বজনরা সেটা জানলেই হয়তো তার কাছে টাকা ধার চেয়ে বসবেন। এর জন্যই মুখোশ পরে লটারির টাকা নিলেন তিনি। এদিকে ন্যাশন্স সুপার লোটো থেকে পাওয়া লটারির টাকা পেতে ৫৪ দিন অপেক্ষা করতে হয়েছে ।ব্যক্তির নাম ক্যাম্পবেল। স্টার সংবাদপত্রকে তিনি বলেছিলেন যে, নভেম্বর মাসে জিতে যাওয়ার পর তিনি কিছু দিনের জন্য অসুস্থ বোধ করেছিলেন এর কারণ হিসেবে তিনি নিজেকেই দায়ি করেন। “আমি এত চিন্তা করছিলাম। যেদিন থেকে আমি জেনেছি যে আমি জিতেছি, আমি অসুস্থ হয়ে গেছি। আমার মাথা তিন দিনের জন্য খারাপ করেছে কারণ আমি এত চিন্তা করছিলাম – যদি আমি সত্যিই যা করতে চাই তা সত্যি হয়ে যায়। দুই সপ্তাহের জন্য আমার পেট খারাপ ছিল।

কখনও কখনও আমি এত ব্যথা অনুভব করি যে আমি ভুলে গেছি।” ৫ই ফেব্রুয়ারি চেক নিতে এসে তিনি বলেন, তিনি ভাল বোধ করছেন। ক্যাম্পবেল জ্যামাইকা স্টারকে বলেছিলেন যে তিনি প্রথমেই হতাশ হয়েছিলেন। “আমি আমার টিকিট দেখেছি এবং আমার বাথরুমে ঢুকে বললাম, আমি জিতেছি। আমি জিতেছি”এইভাবেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন।

Latest