বিয়ে না করেও সারাজীবন যৌনমিলন করা যায় এই গ্রামে। এটাই আইন

More articles

টোটকা24×7 নিউজ ডেস্ক: আমাদের দেশে কোন ছেলে মেয়ে প্রেম করছে শুনলেই বাবা মা কিংবা আত্মীয় স্বজনদের মাথা খারাপ হয়ে যায়। জানা জানির পর থেকেই শুরু করে সম্পর্ক ভাঙার নতুন নতুন কৌশল। জানেন কি এমন এমন এক গ্রাম আছে যেখানে প্রেম-যৌনতায় কোনো বাধা-নিষেধ নেই বরং মা-বাবা নিজেরাই তার সন্তানকে লিভ টুগেদার করতে বলেন। অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটা সত্যি। কম্বোডিয়ার উত্তর-পূর্বের একটি দ্বীপ অঞ্চলে ক্রেয়াংদের বাস। প্রযুক্তি ও আধুনিকতা থেকে বহু দূরে থাকা এই গ্রামের মানুষই কিনা প্রেম বা লিভ টুগেদারের বিষয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর চেয়েও বেশি অগ্রগামী। মেয়েরা ঋতুমতী হলেই মা-বাবা তাকে সঙ্গী বাছাইয়ের স্বাধীনতা দেন। অন্যদিকে, প্রাপ্তবয়স্ক হলেই সঙ্গী খোঁজার ছাড়পত্র পান ছেলেরাও। প্রয়োজনে তারা কোনো আগুপিছু না ভেবেই করতে পারে লিভ ইন। সেই ব্যবস্থাও করে দেন মা-বাবাই৷ যুগলের সময় কাটানোর জন্য বাবা-মাই তৈরি করে দেন ‘লাভ হাট’। বিয়ে এই গ্রামে প্রচলিত নয়। প্রেমিক-প্রেমিকা কয়েক মাস একে অপরকে বুঝে নেয়ার পরই শুরু করেন লিভ ইন। সন্তানের জন্মও হয় লিভ ইন সম্পর্ক থেকেই।

Latest