সচেতন হলেও হতে পারে হার্ট অ্যাটাক! কেন জানেন? জেনেনিন এর কারণ সম্পর্কে

অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা এবং সুপারস্টার পুনিত রাজকুমার। দু’জনেরই বয়স ৪০ থেকে ৫০-এর মধ্যে। দু’জনেই অত্যন্ত শরীর সচেতন। নিয়মিত শরীরচর্চা করতেন। কিন্তু দু’জনেই হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে অকালে মারা গিয়েছেন। কেন? কী বলছেন চিকিৎসকরা?

চিকিৎসকদের মতে, প্রতিটা ওষুধেরই খারাপ দিক রয়েছে। সঠিক সময়ে, সঠিক মাত্রায় তা ব্যবহার না করলে, সেই ওষুধের কু-প্রভাব পড়তে পারে। তেমনই প্রতিটা ব্যায়ামেরও সুপ্রভাব এবং কুপ্রভাব রয়েছে। সঠিক ব্যক্তি, সঠিক ভাবে যদি সেই ব্যায়াম না করেন, তবে সেই কু-প্রভাব পড়তে পারে। কখনও কখনও তা প্রাণঘাতীও হয়। অতএব, কোনও ব্যায়াম বা শরীরচর্চা করার আগে সেটির সঠিক পদ্ধতি জানা প্রয়োজন এবং সেই ব্যায়ামটি আমার জন্য প্রযোজ্য কিনা তাও জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শরীরচর্চার করতে করতে কোনও সময় শরীর আনচান করলে বিষয়টা এড়িয়ে যাওয়া উচিত নয়। হাইপারটেনশনের সমস্যা থাকলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। যদি পরিবারের কেউ আকস্মিক হার্টঅ্যাটাকে মারা যান। তবে আপনিও ইসজি করিয়ে রাখুন। নিজের হার্টের অবস্থা একবার দেখে নিন।

আগে একটা মিথ ছিল যে, বয়স্ক ব্যক্তিদেরই কেবল হৃদযন্ত্রের সমস্যা হয়। কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন, এই ভাবনা একদম ভুল।

এই সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় একটাই। নিয়মিত শরীরের দিকে খেয়াল রাখা। কোনও সমস্যা হলেই চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া। একটু অসতর্ক হলেই ঘটতে পারে মহাবিপদ।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress