জীবনযাপন

কীভাবে পাবেন আকর্ষণীয় ত্বক! তারজন্য অবশ্যই ব্যাবহার করুন এই চার প্রকারের তেল

এসব তেল প্রাকৃতিক হওয়ায় এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। বরং এই চার তেল ভীষণ কার্যকর। চলুন জেনে নেয়া যাক সেই চার তেলের গুণ ও ব্যবহার সম্পর্কে-

লবঙ্গ তেল
ত্বকের বলিরেখা দূর করতে লবঙ্গ তেল ব্যবহার করতে পারেন। এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান রয়েছে। রাতে ঘুমানোর আগে লবঙ্গ তেল ম্যাসাজ করলে ত্বক উজ্জ্বল হয়। লবঙ্গ তেলের সঙ্গে ভিটামিন ই অয়েল মিশিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করুন নিয়মিত।

বাদামের তেল
বাদামের তেল ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এছাড়া বাদামের তেলে ভিটামিন এ পাওয়া যায়, যা ব্রণ নিরাময়ে সহায়তা করে। এই তেল নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে।

ক্যাস্টর অয়েল
কেবল চুল ঘন করতেই যে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহৃত হয় সেটা নয়। ত্বকের যত্নেও এই তেল অনন্য। ক্যাস্টর অয়েলে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা ব্রণ কমাতে সহায়তা করে। এছাড়া ক্যাস্টর অয়েল অ্যান্টি-এজিং হিসেবে কাজ করে। ত্বকের বলিরেখা কমায় এটি। ক্যাস্টর অয়েলের সঙ্গে নারকেল তেল মিশিয়ে মুখে সরাসরি ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল তেল
নারকেল তেলে লিনোলিক অ্যাসিড পাওয়া যায়, যা ত্বককে ময়শ্চারাইজ করতে সহায়তা করে। এছাড়াও এই তেলে লোরিক অ্যাসিড রয়েছে, যা ত্বকের পুষ্টি জোগায়। রাতে মুখ পরিষ্কার করে কয়েক ফোঁটা নারকেল তেল নিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন। এটি ত্বকের কালো দাগ কমাবে।

Related Articles

Back to top button