ফল খাওয়ার পর জল খেলে কি কি সমস্যাগুলি হয় জানেন কি?

ফল খাওয়ার পর জল খেতে হয় না-এমনটা নিশ্চয়ই বড়দের কাছ থেকে শুনেছেন! তবে কখনো কখনো ফল খাওয়ার পর অনেকেই জল খেয়ে থাকেন। তবে জানেন কি, কিছু কিছু ফল খাওয়ার পর জল পান করলে হীতে বিপরীত ঘটতে পারে শরীরে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যেসব ফলে জলের পরিমাণ বেশি; সেসব ফল খাওয়ার পরপরই জল পান করা উচিত নয়। যেমন- তরমুজ, বাঙ্গি, খরমুজ, শশা, কমলালেবু, আনারস, বাতাবি লেবু বা স্ট্রবেরির মতো ফল খেয়ে কখনোই জল পান করবেন না।

এর কারণ হলো জলসমৃদ্ধ এসব ফল তৃষ্ণা নিবারণের জন্য যথেষ্ট। তবুও ফল খাওয়ার পরেও তৃষ্ণার্ত বোধ করলে কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর জল পান করতে হবে। চিকিত্সক এবং ডায়েটিশিয়ানরা অবশ্য ফল এবং জলের মধ্যে ৪০-৫০ মিনিট ব্যবধানের পরামর্শ দেন।

এবার জেনে নিন ফল খেয়ে জল পান করলে শরীরের যেসব ক্ষতি হয়-

পিএইচ মাত্রা কমে: ফল খাওয়ার পর জল পান করলে হজমে গোলমাল দেখা দিতে পারে। কারণ যেসব খাবারে জল থাকে; তার সঙ্গে যদি জল খাওয়া হয় তাহলে পিএইচ মাত্রা কমে যায়। ফলে তা হজমে ব্যাঘাত ঘটায়। ফাইবার ও জল থাকার কারণে পেঁপে বা বাঙ্গিজাতীয় ফল খালি পেটে খেতে নিষেধ করে বিশেষজ্ঞরা। এর ফলে পিএইচ মাত্রা কমে যেতে পারে। পুষ্টিবিদদের মতে, খালি পেটে এসব ফল খেলে তা অন্ত্রে পৌঁছনোর আগেই খাদ্যনালীতেই পরিপাক শুরু হয়ে যায়।
পরবর্তীতে আবার জল পান করলে শরীরের পিএইচ মাত্রা কমিয়ে দিয়ে তা হজমে ব্যাঘাত ঘটায়। এতে খাবার হজম না হওয়ায় শরীরে পুষ্টির জোগান দেওয়ার বদলে তা টক্সিনে পরিণত হয়।

ডায়রিয়া হতে পারে: শশা বা তরমুজ যদি সঠিক নিয়ম মেনে খাওয়া হয়; তাহলে তা হজমে সাহায্য করে। ফলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে এই সব ফল মলত্যাগে সাহায্য করে। যদি এসব ফলের সঙ্গে জল পান করা হয়; তাহলে সেই প্রক্রিয়া অতি সক্রিয় হয়ে গিয়ে ডায়রিয়া হতে পারে।

পেট ফুলে যায়: ফল খাওয়ার পরপরই জল পান করলে তা হজম না হওয়ার ফলে পেট ফুলে যেতে পারে। কারণ ফল খাওয়ার পর জল পান করলে এটি পেটে গিয়ে কার্বন-ডাই-অক্সাইড তৈরি হতে শুরু করে। যা গ্যাস এবং পেট ফাঁপা হতে পারে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress