যেসব কারণে পুরুষের কিডনিতে পাথর বেশি জমে

নারী ও পুরুষ উভয়ই কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত হতে পারেন। বিশেষ করে কিডনিতে পাথর হওয়ার সমস্যায় লিঙ্গভেদে অনেকেই ভোগেন।

পানি কম খাওয়া, খাদ্যাভ্যাসের সমস্যা, জীবনযাত্রায় অনিয়মের কারণেই কিডনিতে পাথর হতে পারে। এটি বিরল কোনো সমস্যা নয়।

বিশ্বব্যাপী ১১ শতাংশ পুরুষ ও ৬ শতাংশ নারীই এ সমস্যায় ভোগেন। তবে জানলে অবাক হবেন, পরিসংখ্যান অনুযায়ী নারীর তুলনায় পুরুষদের এ সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি।

তবে কী কারণে পুরুষদের কিডনিতে বেশি পাথর জমে? তার আগে জেনে নিন কেন কিডনিতে পাথর জমে-

মূলত ক্যালসিয়াম জমে কিডনিতে পাথর তৈরি হয়। ক্যালসিয়াম অক্সালেট আছে এমন খাবার বেশি খেলে কিডনিতে পাথর জমার আশঙ্কা বাড়ে।

যেমন- খেজুর, বেরি, কামরাঙার মতো ফল, পালং শাক, বিটসহ গাজরেও প্রচুর ক্যালসিয়াম অক্সালেট থাকে। তাই এ খাবারগুলো বেশি পরিমাণে খাওয়া উচিত নয়।

>> এছাড়াও পানি কম খেলেও কিডনিতে পাথর জমে। পানি কিডনি থেকে ক্যালসিয়াম অক্সালেট বার করে দেয়। পর্যাপ্ত পানি না খেলে এই সমস্যা আরও বাড়তে পারে।

>> এ ছাড়াও মদ্যপান, অতিরিক্ত লবণ ও মসলা দেওয়া খাবার দীর্ঘদিন ধরে খেলেও কিডনিতে পাথর জমার ঝুঁকি বাড়ে।

তবে নারীর তুলনায় পুরুষদের কিডনিতে পাথর জমার আশঙ্কা বেশি হওয়ার কারণ কী?

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এর প্রধান কারণ পানি কম খাওয়া। পরিসংখ্যান বলছে, পুরুষরা নারীর তুলনায় কম পানি খান। এ কারণে পুরুষরা বেশি ডিহাইড্রেশনেও ভোগেন। আর সে কারণেই তাদের কিডনিতে পাথর জমার আশঙ্কা বাড়ে।

বিজ্ঞানীরা আরও বলছেন, মদ্যপান ও জীবনযাত্রায় অনিয়মের ক্ষেত্রে পুরুষরা নারীর তুলনায় এগিয়ে আছেন। এ কারণেই তাদের কিডনিতে পাথর জমার আশঙ্কা বেশি।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress