যে ব্যায়াম ও ডায়েটের গুণে ৪৯ বছরেও ফিট জন আব্রাহাম

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা জন আব্রাহাম এবার ৪৯ বছরে পা রাখলেন। ভারতীয় এই মডেল, অভিনেতা ও সিনেমার প্রযোজক ১৯৭২ সালের ১৭ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৯৯ সাল থেকে বলিউডে নিজের ক্যারিয়ার গড়েন জন। দেখতে দেখতে ৪৯ বছরে পৌঁছালেন এই হ্যান্ডসাম হাঙ্ক। তবে তার বডি ফিটনেস ও সৌন্দর্য ঠিক যেন ৩০ বছরেই আটকে আছে।

সিক্স প্যাক অ্যাবসের জন কতটা ফিটনেস ফ্রিক, তা তার ভক্তকূলেরা সবাই জানেন। এমনকি তার অনেক অনুসারীরাও আছেন, যারা নিয়মিত জনকে দেখে উৎসাহিত হন। এমনকি তারাও জনের মতো ফিটনেস পেতে জিমে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা শরীরচর্চা করেন।

অনেকের মনেই কৌতূহল আছে, অ্যাকশন হিরো জনের সুঠাম দেহের রহস্য লুকিয়ে আছে কোন ব্যায়ামে ও ডায়েটে। জন্মদিনে রইলো ‘জিসম’ খ্যাত অভিনেতা জন আব্রাহামের ফিটনেস সিক্রেট।

শরীরচর্চা থেকে ডায়েট দুটো বেশ সমানভাবে ফলো করেন জন। জনের মতে, একটি ফিট শরীরের জন্য ৬০ শতাংশ ডায়েট এবং ৪০ শতাংশ ওয়ার্কআউট সবচেয়ে জরুরি। এ কারণে কঠোর ডায়েটের পাশাপাশি নিয়মিত শরীরচর্চা করেন তিনি।

প্রতিদিন ৪৫ মিনিট তিনি জিমে গিয়ে ব্যায়াম করেন। এ ছাড়াও প্রতিদিন ৩০ মিনিট করে কার্ডিওভাস্কুলার ব্যায়াম করেন। এই ব্যায়াম হার্টকে সুস্থ রাখে।

জিমে ব্যায়াম করার পর ২০- ২৫ মিনিটের জন্য দৌড়ান জন। শরীরের শেপকে ধরে রাখতে কিছু বিশেষ ব্যায়াম করে থাকেন জন। যেমন-

* বুকের ব্যায়াম- ফ্ল্যাট বেঞ্চ প্রেস, ইনক্লাইন ডাম্বেল প্রেস, ডেক্লাইন পুল ওভার, কেবল ক্রস ওভার।

* কাঁধের ব্যায়াম- বারবেল শোল্ডার প্রেস, ডাম্বেল আর্নল্ড প্রেস, ডাম্বেল লেটারাল রাইজ, ফ্রন্ট রাইজ।

* কোমরের ব্যায়াম- বারবেল ডেড লিফট, পুল আপস, ওয়াইড গ্রিপ লেট পুল ডাউন,কেবল সিটেড রো, ওয়ান আরম ডাম্বেল রো।

* পায়ের ব্যায়াম- বারবেল ফ্রন্ট স্কুয়াট, লেগ প্রেস, সিটেড লেগ কার্ল, কালফ প্রেস, লেগ এক্সটেনশন।

* হৃৎপিণ্ডের ব্যায়াম- ট্রিডমিল রানিং ও ওয়াকিং।

* পেটের মাংসপেশীর ব্যায়াম- এক্সসারসাইজ বল রিভার্স ক্রাঞ্চ, হেঙ্গিং লেগ রাইজ, প্ল্যাঙ্ক, লেগ রাইজ।

সবচেয়ে অবাক করা তথ্য হলো, জন আব্রাহাম কোনো ধরনের প্রাণীজ প্রোটিন গ্রহণ করেন না। অর্থাৎ তিনি হলেন নিরামিষাশী। জনের ডায়েটে প্রচুর প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট ও ফাইবার থাকে। যার সবই তিনি শাক-সবজি ও ফলমূল থেকে গ্রহণ করেন।

প্রোটিনের জন্য দুধ, দই, স্প্রাউটস, মসুর ডাল, সয়াবিন, আলু, গম, জোয়ার-বাজরা রাখেন পাতে। ফাইবারের জন্য সালাদ, সবুজ শাক-সবজি ও আপেল, কমলালেবু খান জন। সকালের নাস্তায় রাখেন ডিম, টোস্ট, বাদাম ও ১ গ্লাস জুস।

জন প্রতিদিন ৪-৬ হাজার ক্যালোরি বার্ন করেন। জিম ও শুটিংয়ের পরে নিজেকে সুস্থ রাখতে দিনে ৬ বেলা খাবারের সঙ্গে মাল্টি ভিটামিন ট্যাবলেটও প্রোটিন সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করেন এই তারকা।

অন্যদিকে বিকেল ৫টার পর জন আব্রাহাম কোনো ধরনের কার্বোহাইড্রেট আর গ্রহণ করেন না। সব মিলিয়ে তার খাবারের তালিকায় থাকে ৫০ শতাংশ প্রোটিন, ২০ শতাংশ কার্বোহাইড্রেড, ২০ শতাংশ ফাইবার ও ১০ শতাংশ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যাসেনশিয়াল ফ্যাট।

সুস্থ-সবল পেশীর জন্য প্রতিদিন কমপক্ষে ৬-৭টি ডিমের সাদা অংশ, এক টুকরো মাছ ও ডাল খওয়া খুব জরুরি। জন বলেন, প্রোটিন আমাদের দেহের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

তবে মাংস খাওয়ার বিষয়ে আমি অনেক সচেতন। আমি কখনো রেড মিট খাই না। আপনারাও চেষ্টা করবেন রেড মিট না খাওয়ার। কারণ এটি শরীরের জন্য বেশ ক্ষতিকারক।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress