একা একা কথা বলেন, ভালো না খারাপ? জেনেনিন

অনেককেই দেখা যায়, নিজে নিজে কথা বলতে। যদি কোনো অস্বাভাবিক আচরণ না দেখা যায়, তাহলে নিজে নিজে কথা বলা খারাপ কিছু নয়; মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের এমন মত। এছাড়া একা একা কথা বলার অভ্যাস জটিল কোনো রোগ নয়। তাই চিন্তার কারণ নেই। বরং এর অনেক ভালো দিক আছে। জেনে নেয়া যাক সেসব।

চাপ কমায়:
প্রচণ্ড মানসিক চাপে থাকলে, আর তা অন্য কাউকে বোঝানোর উপায় না থাকলে, নিজের সঙ্গেই কথা বলুন। মনোবিদদের এমন পরামর্শ।

আত্মবিশ্বাস বাড়ায়:
অনেকেই বহু মানুষের সামনে নিজেকে মেলে ধরতে ভয় পান। স্টেজে উঠে কিছু বলতে হলে বা অনেকের সামনে প্রেজেন্টেশন দিতে হলে কয়েক পা পিছিয়ে যান। এক্ষেত্রে নিজে নিজে কথা বলা ভালো উপায়। অনেকেই কলেজে ভাইভার আগে বা চাকরির ইন্টারভিউ দিতে যাওয়ার আগে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে একা একাই অভ্যাস করে নেন। এতে মনের জোর বাড়ে।

সমাধান মেলে:
কোনো জটিল সমস্যায় পড়লে অনেকেরই মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়, ব্যবহারে বদল আসে, নিজের মানসিক উদ্বেগ অন্যের ওপর প্রয়োগ করে ফেলেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মন অশান্ত করার চেয়ে নিজের সঙ্গেই খানিক কথোপকথন চালিয়ে নিন। এতে সমাধানের পথ অনেক সহজ হবে।

মনোসংযোগ বাড়ে:
নিজে নিজে কথা বললে মন ও মস্তিষ্কের তীক্ষ্ণতা বাড়ে। আর এটি মনোসংযোগ বাড়ানোর অন্যতম উপায়। নিজের বিচারবুদ্ধি দিয়েই যদি সিদ্ধান্তে পৌঁছনো যায়, তাহলে আত্মবিশ্বাস যেমন বাড়ে, তেমনি যে কোনো বিষয়ে ফোকাস বাড়ানো যায়।

তবে হ্যাঁ, একা একা কথা বলতে গিয়ে যদি কোনো অস্বাভাবিক আচরণ দেখা যায়, স্থান-কাল ভুলে এমন আচরণ করতে থাকে কেউ, তাহলে চিন্তার কারণ আছে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress