বুড়ো আঙুল দেখে চিনে নিন মানুষ!

ইশারায় বৃদ্ধাঙ্গুলির ব্যবহারে আমরা অনেক কিছুই বুঝিয়ে থাকি। কখনও ইতিবাচকভাবে কখনও নেতিবাচক কাজে এই আঙ্গুলের ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু জ্যোতিষশাস্ত্রে বা হস্তরেখায় বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখে ব্যক্তিকে নিখুঁত ভাবে বিচার করা যায়। এইজন্যই আইনত কোন কাজে সবসময় বৃদ্ধাঙ্গুলির ছাপ নেওয়া হয়।

আসুন, এ বার জেনে নেই কিভাবে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখে বুঝবেন কেমন মানুষ।

১। মানুষের বুড়ো আঙুল যত সুন্দর, যত বেশি লম্বা এবং হাতের চেটোর সঙ্গে লম্ব ভাবে যুক্ত, সে তত বেশি সুন্দর মনের মানুষ। তার তত বেশি বুদ্ধির বিকাশ হয়ে থাকে।

২। যাদের বুড়ো আঙুল কদর্য, খর্ব, স্থূল, তার মানসিক গঠন অমার্জিত। খুব ছোট ও মোটা বৃদ্ধাঙ্গুলির মানুষের ইচ্ছাশক্তি পশুর ইচ্ছাশক্তির মতো হয়। কোনও বিচারবুদ্ধি কাজ করে না।

৩। বুড়ো আঙুল লম্বা হলে সে ব্যক্তি কৌশলে তার কার্যসিদ্ধি করে নেয়। এরা বুদ্ধির জোরে অন্যকে পরাস্ত করে।

৪। যাদের বুড়ো আঙুল লম্বা, নমনীয় ও সুন্দর তারা খুব হাসিখুশি, সৎভাবযুক্ত ও মধুর স্বভাবের হয়। এরা বেশ সামাজিক হয়।

৫। মোটা গদার মতো বা থ্যাবড়া বুড়ো আঙুল নির্দেশ করে এদের শরীরে কর্কশ ও রূঢ় ভাব বেশি থাকবে। এমনকি অপরাধী, খুনী, ডাকাতও হতে পারে।

৬। যদি বৃদ্ধাঙ্গুলির গোড়া সরু, মাথাটা মোটা হয় তারা খুব চালাক-চতুর হয়। এদের সহজে কেউ ঠকাতে পারে না। এরা দায়িত্বশীল হয়। প্রথম জীবনে সফল না হলেও পরবর্তী জীবনে অবশ্যই সুখী হয়।

৭। অনমনীয় শক্ত বৃদ্ধাঙ্গুলযুক্ত ব্যক্তিরা চট করে কারও কথায় বিশ্বাস করে না। কারও যুক্তি মানতে চায় না। হঠাৎ করে কারও সঙ্গে আলাপ করতে চায় না। এরা বাস্তববাদী, স্বার্থপর, প্রশংসাপ্রিয় এবং চাপা আত্মকেন্দ্রিক হয়। এরা যে কোনও কাজ করতে একটু বেশি সময় নেয়। এরা নিজের আদর্শ নিয়ে চলতে ভালবাসে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress