কোষ্ঠকাঠিন্য সারাতে জলে ঘি মিশিয়ে পান করুন!

অস্বস্তি বোধ থেকে শুরু করে পেট ব্যথা করা, কোষ্ঠকাঠিন্য নানা সমস্যা ডেকে আনতে পারে। আপনি যদি কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগে থাকেন এবং ঘরোয়া সমাধানে আস্থা রাখতে চান তবে বেছে নিতে পারেন সহজ একটি উপায়। এটি আপনার কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা অনেকটাই কমিয়ে আনবে। বলুন তো সেটি কী হতে পারে? সেটি হলো একগ্লাস গরম জলে এক চামচ ঘি। আর এটি তৈরি তো খুবই সহজ, তাই না? এর উপকারিতার কথা প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

এটি কীভাবে কাজ করে?
ঘি একটি সুপারফুড তবে এর উপকার ঠিকভাবে পাওয়ার জন্য অবশ্যই এটি গ্রহণের সঠিক উপায় জেনে রাখা উচিত। ঘি পুষ্টিযুক্ত অ্যাসিড সমৃদ্ধ। যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

বাট্রিক অ্যাসিডও বিপাকের উন্নতি করে এবং মলের ফ্রিকোয়েন্সি এবং চলাচলে সহায়তা করে। এটি পেটে ব্যথা, গ্যাস, ফোলাভাব এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের অন্যান্য লক্ষণগুলোও হ্রাস করে।

ঘি হাড়ের শক্তিবৃদ্ধি সহ ওজন হ্রাস করে। এটি ঘুমসহ স্বাস্থ্যগত বিভিন্ন সুবিধা দিয়ে থাকে। এটি সর্বোত্তম প্রাকৃতিক রেচক।ঘি শরীরের তৈলাক্তকরণ সরবরাহ করে এবং অন্ত্রের উত্তরণ পরিষ্কার করে, যা বর্জ্য চলাচলে উন্নতি করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের ঝুঁকি হ্রাস করে।

যেভাবে খাবেন
একগ্লাস হালকা গরম জলে এক টেবিল চামচ ঘি ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। ভালো ফল পেতে সকালে খালি পেটে পান করুন।কোষ্ঠকাঠিন্য ঘটে যখন পাচনতন্ত্র, অন্ত্র এবং কোলন রুক্ষ, শক্ত এবং শুষ্ক হয়ে যায়। ঘি এর তৈলাক্তকরণ বৈশিষ্ট্য সিস্টেমকে নরম করে এবং শরীর থেকে বর্জ্য মসৃণভাবে নির্গমনকে সহায়তা করে। এভাবে ঘি মিশ্রিত জল পান করলে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে দ্রুত মুক্তি পাবেন।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress