জেনেনিন অতিরিক্ত গরমে ডাবের জল খেলে কী হয়?

গরমে তৃষ্ণা মেটাতে ডাবের জলর উপর নির্ভর করেন অনেকেই। বিশেষ করে বাইরের জুস বা শরবতের থেকে ডাবের জল অনেক বেশি নিরাপদ। ডাবের জল আমাদের শরীরে কী কী উপকার বয়ে আনে চলুন জেনে নেই-

অতিরিক্ত গরমের ফলে শরীরে ঘামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় জল বেরিয়ে যায়। আবার কখনো অতিরিক্ত গরমে বমির ফলেও অতিরিক্ত জল শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। এর ফলে ডিহাইড্রেশনের মতো সমস্যা হয়। ডাবের জল শরীরের এই ঘাটতি পূরণ করে। এতে আছে কার্বোহাইড্রেড যা এনার্জি বাড়ায়।

ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করতে ডাবের জল বেশ কার্যকরী। কারণ এতে আছে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম ও ভিটামিন সি যা ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণ করে। মনে রাখবেন ডাবের জল একটু মিষ্টি হয় তাই ডায়াবেটিসের সমস্যায় অতিরিক্ত না খাওয়াই ভালো।

ডাবের জল হার্টকে ভালো রাখতেও সাহায্য করে। হার্টকে ভালো রাখতে খাবারের তালিকায় ডাবের জল যোগ করতে পারেন। এটা প্রমাণিত, ডাবের জল হার্ট অ্যাটার্কের সম্ভাবনা অনেকটা কমায়। এটি হাইপারটেনশনও কমায়।

হাড়কে মজবুত রাখার জন্য দরকার ক্যালসিয়াম ও আরও অনেক পুষ্টিগুণ। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ডাবের জলে ক্যালসিয়াম আছে যা হাড়ের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান।

বাইরের রোদ থেকে হওয়া সান ট্যানের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে ডাবের জল উপকারী। কারণ এটি প্রাকৃতিক ট্যান রিমুভারের মতো কাজ করে। শুধু সান ট্যান নয় মুখের অন্য যেকোনো ব্ল্যাক স্পট দূর করতেও সাহায্য করে।

ডাবের জল প্রাকৃতিক টোনার হিসাবে কাজ করে। এটি স্কিনে পিগমেনটেশন, ব্লেমিসেস দূর করে।

স্কিনের অন্যান্য সমস্যা বা ইনফেকশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি স্কিনের ইনফেকশন কমায়। কারণ ডাবের জলরর আছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ।

ডাবের জল ত্বককে চকচকে করার পাশাপাশি, এটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারের কাজ করে। এর পাশাপাশি ত্বক তৈলাক্ত হলে ত্বকের অতিরিক্ত তেলকে দূর করে।

ত্বকের সঙ্গে চুলের সমস্যা ও চুলকে ভালো রাখতেও ডাবের জল উপকারী। এটি স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে চুল কম পরে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress