আপনার প্রেম কোন ধরনের? জেনেনিন বিস্তারিত ভাবে

দুজন বিরপীত লিঙ্গের মানুষের পারস্পারিক সহজাত আকর্ষণ, একে অন্যের প্রতি টান, মমতা; চোখের সামনে না দেখতে পেলে মন খারপ হওয়া- স্বাভাবিকভাবে এরকম সম্পর্ককেই আমরা প্রেম বলে জানি। কিন্তু সব প্রেম কি এক? না। প্রেমেরও আছে নানা ধরন। ব্যক্তিভেদে প্রেমের ধরনেও দেখা দিতে পারে ভিন্নতা। দেখে নিন আপনার প্রেম কোন ধরনের-

নির্ভরশীলতা: আপনি সব কাজই নিজে করে নেন। কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে মনে হয় বর সঙ্গে গেলে ভাল। এই ধরনের সম্পর্কের কেমিস্ট্রি ভালো হয়।

স্বাধীনতা: প্রেমে আবদ্ধ হলেও আপনি স্বাধীন থাকতে বেশি ভালোবাসেন। এটি ভালো। এতে অন্যের উপর নির্ভরশীলতা কমে। তবে তার মানে এই নয় যে আপনি বাকিদের দেখাচ্ছেন। আপনার সঙ্গীও কিন্তু এই স্বাধীনতা পছন্দ না করতেও পারেন। কারণ কোনো ছেলে বা মেয়ে কোনো সম্পর্কে অবাধ স্বাধীনতা মোটেই পছন্দ করে না।

দাপুটে: প্রেমিক বা প্রেমিকা কেউ এরজন যদি খুব দাপুটে হয় তাহলে সেই সম্পর্ক খুব বেশিদিন টেকে না। আপনার জোর করে চাপিয়ে দেওয়ার এই মেন্টালিটি আপনার সঙ্গী মোটেই পছন্দ করে না। প্রথমদিকে কয়েকদিন করলেও পরের দিকে মোটেই করবে না।

বিষাক্ত সম্পর্ক: প্রেম করছেন, দুজনের মধ্যে ভালোবাসাও আছে কিন্তু কেউ কখনও একফোঁটা ছাড় দিতেও রাজি নন। এমনকা কেউ নিজের ভুলও স্বীকার করেন না কখনো। এই সম্পর্কের স্থায়িত্ব কিন্তু বেশিদিন নয়। একটা সম্পর্ক অনেক কিছুর উপর দাঁড়িয়ে থাকে। জেদের বশে কিছুই হয় না।

খোলামেলা: সঙ্গী বা সঙ্গিনী কেউ একজন যদি খুব উদার হয়। প্রেমিকাকে চুমু খেলেও পরক্ষণে অন্য মেয়ের কোমর জড়িয়ে ধরতে পারে। আর ওদিকে প্রেমিকাও অন্য ছেলেদের সঙ্গে ডেটিং করছে। কী বলবেন আপনি? যদি আপনাদের দুজনের মানসিকতা এরকম না হয় তবে ওপেন সম্পর্কে একেবারেই যাবেন না।

বন্ধু যখন বর: দুজনে খুব বন্ধু, অনেক কথা শেয়ার করেন। ঝগড়া করেন, সিনেমা দেখেন। একে অপরের পিঠ চুলকে দেন, আবার ঘনিষ্ঠও হন। কিন্তু কোথাও যেন খামতি থাকে। যতটা অন্তরঙ্গ হওয়া প্রয়োজন ঠিক ততটা আপনারা করতে পারেন না। এই সম্পর্ক কিন্তু স্বামী-স্ত্রী হিসেবে খুব ভালো কাজ করে না।

যৌনতা যখন সম্পর্কের ভিত্তি: প্রেম থাকবে, শরীর থাকবে, চুমু থাকবে ও যৌনতাও থাকবে। কিন্তু যখন প্রেম শরীর সর্বস্ব ধরে নিন এই প্রেম টিকবে না। শরীরের মোহও একটা সময় পরে কেটে যায়।

পারফেক্ট জুটি: মনের দিক দিয়ে পছন্দের দিক দিয়ে আপনাদের মধ্যে যদি বোঝাপড়া থাকে, আপনীদের একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা থাকে, ভালোবাসা থাকে এবং একে অপরের প্রতি যদি স্বার্থত্যাগ করতে প্রস্তুত থাকেন তবে আপনাদের জুটিই সেরা।

দূরত্ব বাড়ে শুধু: লং ডিসটান্স রিলেশনশিপ নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। কিন্তু এই দূরত্বের ফলেই হতাশা আসে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যা এই লং ডিসটান্স রিলেশনশিপের ব্রেকআপের কারণ। কারণ এই দেখা না হওয়া, এই স্পর্শ না থাকা অনেকেই মানতে পারেন না।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress