চা-কফির সঙ্গে স্বাস্থ্যকর ব্রেকফাস্ট কোনগুলো?

এই দিনে একটু আয়েশ করেই চা-কফি খাওয়া হয়। কিন্তু শুধু চা হলেই তো চলে না, চায়ের সঙ্গে দরকার পরে ‘টা’-এরও। অর্থাৎ শুধু চা নয়, দরকার পরে নাস্তারও। ভোজনবিলাসী বাঙালি বলে কথা!

কিন্তু গরম পানীয়ের সঙ্গে আমরা যে ধরনের নাস্তা খেতে পছন্দ করি তার বেশিরভাগটাই অস্বাস্থ্যকর (যেমন ধরুন বিস্কুট, নিমকি, চানাচুর, প্যাটিজ)।

তাহলে চায়ের সঙ্গে এমন কী খাওয়া যায়, যা অস্বাস্থ্যকর হবে না? এমন কয়েকটি এমন স্ন্যাক্সের সন্ধান জেনে নিন যা খেতেও ভালো এবং স্বাস্থ্যের দিক থেকেও কোনোরকম সমঝোতা করার প্রশ্ন নেই-

ভুট্টা সেদ্ধ: এই সময়ে বাজারে দারুণ মিষ্টি ভুট্টা পাওয়া। সেই ভুট্টা সেদ্ধ করে বেশ করে লেবু আর বিট লবণ মিশিয়ে নিন। আর যদি কাঁচা মরিচ, খানিকটা ভাজা জিরার গুঁড়া, বিট লবণ, পেঁয়াজকুচি মেশাতে পারেন, তাহলে তো কথাই নেই! ভুট্টার বদলে চিনা বাদাম দিয়েও এই একইরকম চাট বানিয়ে নিন। খেতে বেশ ভালো লাগবে। তবে দুধ চা দিয়ে না খেলেই ভালো করবেন, এটি লিকার চায়ের বা কালো কফির সঙ্গে খুব ভালো সঙ্গত করবে।

ছোলা-চিনেবাদাম ভাজা: শুকনো খোলায় ভাজা চিনেবাদাম আর ছোলা আপনার প্রোটিন ইনটেকের মাত্রা বাড়াবে। এই সুখাদ্যটি আপনি দুধ দেওয়া চা বা কফির সঙ্গেও স্বচ্ছন্দে খেতে পারেন।

মুড়ি মাখা: চায়ের সঙ্গে এই পদটি আপনার পছন্দ হবেই। মুড়ি-বাদাম-পেঁয়াজ-কাঁচামরিচের মিশ্রণের কোনো বিকল্প হয়, বলুন তো? বহু বছর ধরে তো বাঙালিকে বাঁচিয়ে রেখেছে এই কম্বিনেশনই, তাই না!

আমন্ড-কাজু-আখরোটের মিশ্রণ: আমন্ড, কাজু আর আখরোট রাখুন হাতের কাছে। এই মিশ্রণও চায়ের সঙ্গে দারুণ লাগে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress